“আমি মরিনি, আমি আপনাদের সঙ্গেই থাকব”, বোলপুরে ফিরে বার্তা অনুব্রত’র

আশিস মণ্ডল, আমাদের ভারত, বীরভূম, ২০ মে: দীর্ঘ দেড় মাস পর আজ বোলপুরে ফিরলেন অনুব্রত মন্ডল। শহরে পা রাখার পর দলীয় নেতা-কর্মী ও অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে তাঁর বার্তা “আমি মরিনি। আমি আপনাদের সঙ্গেই থাকব।”

এদিন বিকেলে তাঁকে দেখতে রাস্তায় জনতার ঢল নেমেছিল। দলীয় নেতা-কর্মী থেকে মা-বউদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। বলা যায়, অনুব্রতকে কেন্দ্র করে জনসমুদ্রে পরিণত হয় বোলপুর শহরের রাস্তা। ফুল, শ্লোগান দিয়ে, ঘাস-ফুল পতাকা নাড়িয়ে জেলা তৃণমূলের কাণ্ডারীকে স্বাগত জানালেন তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। যা দেখে অভিভূত অনুব্রত। তাই অসুস্থ শরীর নিয়েও গাড়ি থেকে নেমে সকলকে ধন্যবাদ জানান তিনি। বয়স্কদের প্রণাম ও ছোটদের ভালবাসা জানিয়ে সকলের প্রতি কেষ্টদা’র বার্তা, “আমি আছি। আমি মরিনি। আমি আপনাদের সঙ্গেই থাকব।”

এদিন বিকেল ৪টে নাগাদ কলকাতা থেকে সড়কপথে বোলপুরে ফেরার কথা ছিল অনুব্রত মণ্ডলের। সেই মতোই দুপুর থেকেই রাস্তার দু-ধারে তৃণমূল নেতা-কর্মী থেকে সমর্থকদের ভিড় জমে। তারপর বিকাল সাড়ে ৪ টে নাগাদ কনভয় নিয়ে বোলপুরে ঢোকে অনুব্রত মন্ডলের বিলাসবহুল কালো গাড়িটি। দূর থেকে কনভয় দেখেই অনুরাগীরা বুঝতে পারেন, এবার তাঁদের প্রিয় কেষ্টদা ঢুকছেন। সমবেতভাবে অনুব্রতর জয়ধ্বনি করে ওঠেন সকলে। গমগম করে ওঠে গোটা বোলপুর শহর। তারপর জেলা সভাপতির কালো গাড়ির উপরই হলুদ গাঁদা ফুল ছুঁড়ে, শ্লোগান দিয়ে, ঘাস-ফুল পতাকা নেড়ে জেলা সভাপতিকে স্বাগত জানান তৃণমূল নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। যা দেখে স্বাভাবিকভাবেই উৎফুল্ল হয়ে যান অনুব্রত। গাড়ির ভিতর থেকেই হাত নেড়ে অনুগামীদের ধন্যবাদ জানান তিনি। তারপর বাড়ি পৌঁছনোর আগেই গাড়ি থেকে নেমে বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরীর কাঁধে ভর দিয়ে সকলের সঙ্গে থাকার বার্তা দেন অনুব্রত। টানা অসুস্থতার জেরেই তাঁর এই বিশেষ বার্তা বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গোরু পাচার মামলায় নাম জড়ানোয় সিবিআই তলবে হাজিরা দিতে মাস দেড়েক আগে বোলপুরের বাড়ি থেকে কলকাতার চিনার পার্কের বাড়িতে যান অনুব্রত মণ্ডল। তার পরদিন সকালে চিনার পার্কের বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিজাম প্যালেসে যাওয়ার পথেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। নিজাম প্যালেসের বদলে তাঁর গাড়ি সোজা পৌঁছে যায় এসএসকেএম হাসপাতালের উডবার্ন ওয়ার্ডের। সেখানে বেশ কিছুদিন ভর্তি থাকেন বীরভূমের দাপুটে তৃণমূল নেতা। এরপর গত বৃহস্পতিবার ফের সিবিআইএর তলবে হাজিরা দেন নিজাম প্যালেসে। সেখানে সাড়ে তিন ঘণ্টা সিবিআই জেরার সম্মুখীন হওয়ার পরই দুপুর দুটো নাগাদ নিজাম প্যালেস থেকে বেরিয়ে ফের এসএসকেএম হাসপাতালে যান তিনি। ওই হাসপাতালের উডবার্ন বিভাগের চিকিৎসকরা তাঁকে বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। তাই হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে চিনার পার্কে রাত কাটিয়ে এদিনই বোলপুরের বাড়িতে ফিরে আসেন অনুব্রত মন্ডল।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here