রায়গঞ্জে তৃণমূলের নেতৃত্বে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে ফসল ফেলে কৃষকদের বিক্ষোভ

স্বরূপ দত্ত, উত্তর দিনাজপুর, ২৭ জুন: কৃষক বিক্ষোভ সমাবেশের নাম করে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ তৃণমূল কংগ্রেসের। রায়গঞ্জের বারোদুয়ারিতে জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে নাকাল বাসিন্দারা। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, তারা জাতীয় সড়ক অবরোধ করেননি, কৃষকদের বিক্ষোভ সমাবেশের জেরে কিছুক্ষণের জন্য অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছিল জাতীয় সড়ক।

তৃণমূলের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকারের অপরিকল্পিত লকডাউনে অর্থনৈতিকভাবে বিপর্যস্ত দেশের কৃষিজীবী মানুষ। তাই তাদের স্বার্থে আন্দোলনে নামল তৃণমূল কংগ্রেস। রায়গঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে রায়গঞ্জের বারোদুয়ারিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কৃষক বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হল। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে নিজেদের ফসল ফেলে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভে শামিল হন রায়গঞ্জ ব্লকের বহু বিপর্যস্ত কৃষক। তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকা এই কৃষক বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃত্ব দেন রায়গঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি মানস ঘোষ সহ ব্লক তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব।

দেশের কৃষক সমাজের স্বার্থে সমস্তরকম কৃষি ঋণ মুকুব করা, পাটচাষী ও পাটশিল্পকে বাঁচাতে কেন্দ্রীয় সরকারকে পাটের নুন্যতম সহায়ক মূল্য ৭ হাজার টাকা প্রতি কুইন্টাল করা, অবিলম্বে জেলায় সহায়ক মূল্যে ধান কেনা শুরু এবং ভুট্টার সহায়ক মূল্য ঘোষনা করে ভুট্টা ক্রয়কেন্দ্র চালু করা দাবি সহ সাত দফা দাবি নিয়ে শনিবার রায়গঞ্জের বারোদুয়ারি এলাকায় কৃষক বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয় রায়গঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস।

রায়গঞ্জ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি মানস ঘোষ অভিযোগ করে বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের অপরিকল্পিত লকডাউনের কারনে আজ দেশের সমস্ত কৃষক আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। অবিলম্বে দেশের সমস্ত কৃষকদের সবধরনের কৃষি ঋন কেন্দ্রীয় সরকারকে মুকুব করতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের বঞ্চনার প্রতিবাদ জানিয়ে রায়গঞ্জ ব্লকের কৃষকেরা তাদের উৎপাদিত ফসল রাস্তায় ফেলে বিক্ষোভ দেখায়। কৃষকদের এই বিক্ষোভ সমাবেশের নামে রায়গঞ্জের বারোদুয়ারিতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক ঘন্টা দুয়েক অবরোধ করা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here