রায়গঞ্জের কুলিক বাঁধ সংলগ্ন এলাকা থেকে মূল্যবান গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ চোরাকারবারিদের বিরুদ্ধে, এলাকায় চাঞ্চল্য

স্বরূপ দত্ত, আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জের দেবীনগর কান্তনগর এলাকায় কুলিক বাঁধ সংলগ্ন এলাকা থেকে মূল্যবান গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রাতের অন্ধকারে নদীপথ ধরে এসে গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে বহিরাগতরা। এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন ডেপুটি ফরেস্ট রেঞ্জার বরুন কুমার দাস।

উল্লেখ্য, রায়গঞ্জের কুলিক নদীর দুধারে গড়ে উঠেছে বনাঞ্চল। শহরের সীমা ছাড়িয়ে গ্রামীন এলাকাতেও কুলীক নদীর দুপাশে প্রাকৃতিক নিয়মেই গড়ে উঠেছে বনভূমি। শীতকালে বনভোজনের আসরও বসে এই বনাঞ্চলে। কিন্তু সম্প্রতি কাঠ চোরাকারবারীদের দৌরাত্ম বেড়েছে দেবীনগরের কান্তনগর এলাকায়। রাতের অন্ধকারে এই বনাঞ্চল থেকে কেটে নেওয়া হচ্ছে একের পর এক মূল্যবান গাছ। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন,
“রাতের অন্ধকারে গাছ কেটে নিয়ে চলে যাচ্ছে বহিরাগতরা। সন্ধ্যা হলে স্থানীয় লোকজন এখানে আসে না। আমাদের ধারণা নদীপথ দিয়ে এখানে এসে গাছ কেটে নিয়ে চলে যাচ্ছে কাঠ পাচারকারীরা।

অন্যদিকে স্থানীয় কাউন্সিলর প্রসেনজিৎ সরকার বলেন, “গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পেয়েছি। স্থানীয় বাসিন্দারা বনাঞ্চলের দেখভাল করেন। কিন্তু রাতে ফাঁকা থাকার সুযোগে গাছ কেটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিষয়টি পুর চেয়ারম্যান, পঞ্চায়েত ও বনদপ্তরকে জানাবো যাতে গাছ কেটে নিয়ে য্যাওয়ার ঘটনা বন্ধ হয়।

অন্যদিকে কুলিক পক্ষীনিবাসের বিট অফিসার বরুন কুমার দাস বলেন,”এবিষয়ে কোনও অভিযোগ পাইনি। সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে জানতে পারলাম। ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ কে বিষয়টি জানানো হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here