২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮ জন: মুখ্যসচিব

সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা, ২৩ এপ্রিল: করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে রাজ্যে। ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের রেকর্ড বৃদ্ধি পেয়েছে। বৃহস্পতিবার নবান্নে এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮ জন।এখনও পর্যন্ত রাজ্যে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন মোট ৩৩৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে করোনা মুক্ত হয়েছেন ২৪ জন, ফলে মোট সুস্থ ১০৩ জন। রাজ্যে মৃতের সংখ্যা ১৫ জনই রয়েছে। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে জানালেন রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা। ফলে রাজ্যে করোনার আক্রান্তের মোট ঘটনা ৪৫২ জন।

করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকার প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিচ্ছে বলে এদিন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব। তিনি বলেন, মালদহে ১২০ জনের করোনা পরীক্ষা হয়েছিল। তাঁদের প্রত্যেকেরই রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। এই মুহূর্তে রাজ্যের ১২টি ল্যাবরেটরিতে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। করোনা মোকাবিলায় যুদ্ধকালীন তত্‍পরতায় পরিষেবা দিচ্ছে রাজ্যের করোনা হাসপাতালগুলি।

চিকিত্‍সক, নার্স থেকে শুরু করে অন্য স্বাস্থ্যকর্মীরা দিনরাত এক করে আক্রান্ত রোগীদের সেবা করে চলেছেন। ১ এপ্রিল রাজ্যে ৫৯টি করোনা হাসপাতালে রোগীদের পরিষেবা দেওয়া চলছিল। ২৩ এপ্রিল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার রাজ্যে মোট ৬৬টি কোভিড হাসপাতাল করোনা আক্রান্ত রোগীদের পরিষেবা দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন জানিয়েছেন মুখ্যসচিব।

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রথম সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন চিকিত্‍সক, নার্স-সহ অন্য স্বাস্থ্যকর্মীরা। স্বাস্থ্যকর্মীদের এই লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়েছে রাজ্য সরকার। এই প্রসঙ্গে এদিন মুখ্যসচিব বলেন, ‘চিকিত্‍সক, নার্সদের সুরক্ষা খুব জরুরি। তাঁদের সুরক্ষা দিতে বদ্ধ পরিকর রাজ্য সরকার।’ করোনা মোকাবিলায় এখনও পর্যন্ত রাজ্যের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প দফতরের সহায়তায় ১ লক্ষ লিটার স্যানিটাইজার তৈরি করা গিয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব।কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসেব অনুযায়ী, রাজ্যে করোনা আক্রান্তের ঘটনা ৪৫৬ জন। চিকিৎসাধীন ৩৬২ জন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here