কোভিড যুদ্ধে আগামী ১ মাস হাসপাতালই ঘরবাড়ি চিকিৎসক-নার্সদের, নির্দেশ স্বাস্থ্য দফতরের

রাজেন রায়, কলকাতা, ৩০ সেপ্টেম্বর: এ যেন নিয়ন্ত্রণে আসার পরেও ফের আতঙ্ক! ফের উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে পৌঁছে গেছে রাজ্য করোনা সংক্রমণ। বিশেষত কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনায় ফের বিপুল হারে সংক্রমণ এবং মৃত্যুহার চিন্তায় ফেলেছে স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। তাই পুজোর আগে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আগামী ১ মাস চ্যালেঞ্জ নিয়েই কোভিডের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামল রাজ্য সরকার।

স্বাস্থ্য ভবন বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, জেলার কোভিড হাসপাতালগুলিতে ২৪ ঘণ্টা যাতে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীরা উপস্থিত থাকেন, তার ব্যবস্থা করতে হবে। দরকারে হাসপাতালের কাছাকাছি চিকিৎসক, নার্সদের থাকার বন্দোবস্ত করতে হবে। অন্তত এই একমাস পরিবার-পরিজন ভুলে যেতে হবে চিকিৎসক নার্সদের। প্রয়োজনে জেলার মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ও সংশ্লিষ্ট জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিকরা আলোচনা করে হাসপাতালের চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। কোন চিকিৎসক, নার্স কখন থাকবেন, কীভাবে পরিষেবা দেওয়া হবে, তা নিয়ে আগামী ১ মাসের জন্য ডাক্তার, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজের রুটিন (ডিউটি রস্টার) ঠিক করতে হবে। চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা করবে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু হাসপাতালে তাদের ২৪ ঘন্টা উপস্থিত থাকতে হবে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, আগামী ১ মাস অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই ক’টা দিন জেলার মেডিকেল কলেজগুলির অধ্যক্ষ এবং সিএমওএইচ-কে নজরদারি করতে হবে। নিয়মিত রিপোর্ট পাঠাতে হবে স্বাস্থ্যভবনে। কোথাও কোনও কোভিড হাসপাতালে সংক্রমণ বা মৃত্যুহার বেড়ে গেলে স্বাস্থ্যভবনকে জানিয়ে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে। কারণ এই মুহূর্তে সংক্রমণ না কমলে পুজোর পর তা আরও ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির দিকে মোড় নিতে পারে, এমনটাই মনে করছেন স্বাস্থ্যকর্তারা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here