ডেউচা পাচামি শিল্পাঞ্চলে কয়লা খনিতে সায় নেই আদিবাসী মোড়লদের

আশিস মণ্ডল, আমাদের ভারত, বীরভূম, ২৫ নভেম্বর: মহম্মদ বাজারের ডেউচা পাচামি প্রস্তাবিত কয়লা খনি গড়ার লক্ষ্যে যখন সরকার পুনর্বাসন প্যাকেজ ঘোষণা করে প্রস্তাবিত কয়লা খনির রূপরেখা তৈরি করার চেষ্টা চালাচ্ছে সেই সময় হরিণসিংহার মাঠে আদিবাসী সমাজের মোড়লরা আদিবাসীদের নিয়ে বৈঠকে বসে স্পষ্টতই ঘোষণা করল কয়লা খনি হতে দেবো না। বৃহস্পতিবার মোড়লদের ডাকা প্রস্তাবিত কয়লা খনি নিয়ে আলোচনা সভায় উপস্থিত সকলের গলায় এক সুর শোনা গেলেও বিক্ষিপ্তভাবে ভিন্নমত শোনা গেছে কারো কারো গলায়।

সংবাদমাধ্যমের কাছে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডেউচা পাচামি খনি এলাকার এক বাসিন্দা জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন উনি ওনার প্যাকেজ তার কাছেই রাখুন আমরা খনি চাই না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দেওয়ানগঞ্জের এক প্রৌঢ় ব্যক্তি জানান, তার ১৬ কাঠা জায়গা আছে তাতে যে পরিমাণ টাকা পাবেন অন্য জায়গা কিনতে গেলে তার থেকে বেশি পরিমাণ টাকা লাগবে, চাকরিও পাওয়া যাবে না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আদিবাসী মহিলা জানান, গ্রামের সকলে যা সিদ্ধান্ত নেবেন তাই মেনে চলবো। তবে স্থানীয় কিছু আদিবাসী নেতা এখনও মনে করেন সরকারের পক্ষে জেলাশাসক বা সরকারি অফিসাররা সরাসরি আদিবাসীদের সামনে এসে কথা বলুন।

পাথর শিল্পাঞ্চলের কাজ করা আদিবাসীদের একাংশের দাবি, কয়লা খনি হলে এলাকায় অস্থিরতা তৈরি হবে, শান্তির পরিবেশ বিঘ্নিত হবে। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক আদিবাসী যুবক বলেন, রাজ্য সরকার আসানসোল রানীগঞ্জ কয়লা শিল্পাঞ্চলে আগেও প্যাকেজ ঘোষণা করে ক্ষতিপূরণ দিতে পারেননি, এখনও অনেকেই সব সুযোগ থেকে বঞ্চিত রয়েছেন, আমাদের এখানে সেটা হবে না তার নিশ্চয়তা কোথায়? ডেউচা পাচামি প্রস্তাবিত কয়লা খনি শিল্পাঞ্চল গড়ে ওঠাকে ঘিরে এমন নানা প্রশ্ন আদিবাসীদের মনে ঘুরপাক খাচ্ছে।

তবে আলোচনা এখনো শেষ হয়নি আলোচনার রাস্তা খোলা আছে বলেই মনে করেন জেলাশাসক বিধান রায়। তিনি বলেন, এলাকায় কয়লাখনি শিল্পাঞ্চল হলে প্রথমে সরকারের খাস জমিতে করা হবে। আদিবাসীদের সঙ্গে আলোচনার রাস্তা এখনও খোলা আছে, রাজ্য সরকার যে প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন তা অনেক ভালো। আশা করছি আদিবাসীদের সকল স্তরের মানুষ এতে উপকৃত হবেন। মহম্মদ বাজারের পাথর শিল্পাঞ্চল জুড়ে যখন দোদুল্যমান অবস্থা তখন দুবরাজপুরের লোবা কয়লা শিল্পাঞ্চলে এমন প্যাকেজ পেলে জমি দাতারা সাগ্রহে জমি দিতে রাজি বলে বিশ্বস্ত সূত্রে খবর।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here