আর্থিক বেনিয়মের অভিযোগে গান্ধী পরিবারের ৩ ট্রাস্টের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিল কেন্দ্র

আমাদের ভারত, ৮ জুলাই :কেন্দ্রের নির্দেশে অস্বস্তি বাড়লো গান্ধী পরিবারের। দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী ও ইন্দিরা গান্ধীর নামাঙ্কিত তিনটি ট্রাস্টের বিরুদ্ধে আর্থিক বেনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তাই ওই তিন ট্রাস্টের বিরুদ্ধে তদন্তের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এই তদন্তের জন্য একটি আন্তঃ মন্ত্রক কমিটি গঠিত হয়েছে। মূলত আয়কর ফাঁকি এবং অনুদান সংক্রান্ত আইন লংঘন এই দু’টি অভিযোগে গান্ধী পরিবারের সঙ্গে সম্পর্কিত ওই তিনটি ট্রাস্টের বিরুদ্ধে উঠে এসেছে। এই অভিযোগ গুলিকে নিয়েই এবার তদন্ত হবে।

রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন, রাজীব গান্ধী চ্যারিটেবল ট্রাস্ট এবং ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল ট্রাস্ট। এই তিনটি সংস্থাই গান্ধী পরিবারের সঙ্গে আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে রয়েছে। রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন তৈরি হয় ১৯৯১ সালের ২১ জুন। এই ফাউন্ডেশনের শীর্ষে রয়েছেন সোনিয়া গান্ধী। কিছু দিন আগেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ অভিযোগ করেছিলেন, চিনা দূতাবাস ৯০ লক্ষ টাকা অনুদান দিয়েছে এই ফাউন্ডেশনকে। বিজেপি বারবার অভিযোগ করেছে তিনটি ট্রাস্টে অনৈতিকভাবে বহু বিদেশি অনুদান নেওয়া হয়েছে। এমনকি অর্থ তচরূপেরও অভিযোগ রয়েছে ট্রাস্টের বিরুদ্ধে। তাই সব বিষয়গুলো খতিয়ে দেখতে তদন্ত পথে হাঁটল কেন্দ্র।

আন্তঃ মন্ত্রক কমিটি এবার ট্রাস্টগুলির আর্থিক খতিয়ান খতিয়ে দেখবে। দেখা হবে ট্রাস্ট গুলি কর ফাঁকি দিয়েছে কিনা। এই তদন্ত কমিটির পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টটরটের শীর্ষ কর্তা।

করোনা মোকাবিলা, পরিযায়ী শ্রমিকদের ভবিষ্যত, আর্থিক প্যাকেজ, সর্বোপরি চীন-ভারত সীমান্ত সংঘাত নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগে সোচ্চার রাহুল প্রিয়াঙ্কা সোনিয়া। তাই কংগ্রেসকে চাপে রাখতেই এই ট্রাস্ট গুলির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করল কেন্দ্র বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here