করোনায় বিপর্যয়ের মুখে চাকরি ক্ষেত্র! বিশ্বে ২০০কোটি মানুষ চাকরি সংকটে, ৪০কোটি ভারতেরই

আমাদের ভারত, ৮ এপ্রিল :
করোনা ভাইরাসের কারণে বেহাল অবস্থা দেশের অর্থনীতির। তারমধ্যে রাষ্ট্রসঙ্ঘের একটি রিপোর্ট দেখে চোখ কপালে উঠেছে ভারতবাসীর। করোনার কারণে অসংগঠিত কর্মক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত থাকা ৪০ কোটি ভারতীয়র বেহাল অবস্থা হতে পারে। এমনই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে রাষ্ট্রসংঘ। করোনার কারণে চুড়ান্ত বিপর্যয়ের মুখে বিশ্ব জুড়ে চাকরি ক্ষেত্র।

আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংগঠন আইএলও দাবি করেছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সম্ভবত এই মুহূর্তে সবচাইতে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি বিশ্বের চাকরির ভবিষ্যৎ। আইএলও’র প্রধান গায় রাইডার বলেছেন, সারা বিশ্ব চরম বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে চলছে। উন্নত কিংবা উন্নয়নশীল‌ সব দেশকেই দ্রুত এই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে একসাথে পদক্ষেপ করতে হবে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে চলা এই লকডাউনের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্রাজিল, নাইজেরিয়া ও ভারতের অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীরা। বিশ্বজুড়ে ২০০ কোটি মানুষের চাকরি সংকট দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

পরিসংখ্যান বলছে ভারতের ৯০ শতাংশ মানুষই অসংগঠিত কর্মক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত। আর লকডাউনের কারণে গভীর সংকটে পড়েছেন তারা। রাষ্ট্রসঙ্ঘের রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে কাজ থেকে ছাঁটাই হতে পারে প্রায় ১০ কোটি মানুষ। কাজ হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে সব স্তরের কর্মীদেরই। তাই রাষ্ট্রসঙ্ঘের ওই আধিকারিক বলেছেন, একটি দেশও যদি বিপদে পড়ে তাহলে বিপদে পড়বে গোটা বিশ্ব। তাই এই বিপদ কাটাতে এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ভালো রাখা প্রয়োজন। করোনার কারণে চাকরি ক্ষেত্রে যে আন্তর্জাতিক বিপর্যয় দেখা দিতে চলেছে, সবাই মিলে যদি এর মোকাবিলা না করা হয় তাহলে অর্থনীতি একেবারে তলানিতে গিয়ে মিশবে। বিপুল হারে বাড়বে দারিদ্র। বহু মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে চলে যাবে আবার।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here