বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে সমানে সমানে টক্কর দেওয়ার ডাক দিলেন জয়

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১৬ জুন: ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন আসতে এখনও কয়েক মাস দেরি। কিন্তু এই বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখেই দলের কর্মকৌশল স্থির করতে কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়ল বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলা শাখা। আর সেই লক্ষ্যে মঙ্গলবার দুপুরে ফুলেশ্বরের মনসাতলায় বিজেপির হাওড়া গ্রামীণ জেলা কার্যালয়ে দলীয় কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পরিষদের সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যা।

এদিন জয় কর্মীদের বলেন, হাওড়া গ্রামীণ জেলায় বসবাসকারী ৪৫ শতাংশ মানুষ কারণে-অকারণে জেলাকে অশান্ত করে তোলে। যদিও বাকি ৫৫ শতাংশ শান্তপ্রিয় মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে চায়। আর এইসব মানুষদের শান্তিতে বসবাস করতে দেওয়াটা বিজেপির প্রধান দায়িত্ব। আর সেই দায়িত্ব পালন করতে হলে আগামী বিধানসভা নির্বাচনে হাওড়া জেলার ৮টি আসনের মধ্যে অন্তত ৪টি আসনে বিজেপি প্রার্থীদের জয় নিশ্চিত করতে হবে বলে জানান জয় বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন জয় বলেন, যদি তৃণমূল ৮টি আসলে জয়লাভ করে তাহলে ৫৫ শতাংশ মানুষ গ্রামীণ জেলায় শান্তিতে বসবাস করতে পারবে না। জয় বলেন, বিজেপি প্রার্থীদের বিজয় নিশ্চিত করতে হলে দলের প্রতিটি কর্মীকে সঙ্গবদ্ধ ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে হবে এবং তৃণমূলের সঙ্গে সমানে সমানে টক্কর দিতে হবে আর তাহলেই জয় আমাদের নিশ্চিত।

প্রসঙ্গত, গত বিধানসভা নির্বাচনে হাওড়া গ্রামীণ জেলায় বিজেপি একটি আসনেও জয়লাভ করতে পারেনি। যদিও এবারে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব জয়ের উপরে ভরসা রাখায় বিধানসভা নির্বাচনে গ্রামীণ জেলায় দলীয় প্রার্থীদের হাতে বিজয় পতাকা তুলে দেওয়াটা এখন জয়ের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। অবশ্য বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, তিনি বরাবর চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে রাজি।

অন্যদিকে এদিন বিকেলে বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রায় পাঁচ শতাধিক কর্মী বিজেপিতে যোগ দেয়। যদিও বিজেপিতে যোগ দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে তৃণমূলের কটাক্ষ মঙ্গলবার যারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছে তারা আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিল। গত কয়েকদিন একাধিক জায়গায় বিজেপি কর্মীরা তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় বিজেপি আজ মিথ্যে নাটক করেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here