বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে জুনিয়র চিকিৎসককে মারধর, রাত থেকে কর্মবিরতি

আমাদের ভারত, বাঁকুড়া, ১৮ এপ্রিল: শিশু মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার সন্ধ্যায় উত্তেজনা ছড়াল বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। অভিযোগ, মৃত শিশুর পরিবারের উত্তেজিত লোকজন চড়াও হয় মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসারত জুনিয়র চিকিৎসকদের উপর। ঘটনার প্রতিবাদে আজ রাত সাড়ে আটটা থেকে কর্মবিরতি শুরু করে মেডিক্যাল কলেজের জুনিয়র চিকিৎসকরা। পুলিশ মৃত শিশুর পরিবারের অভিযুক্ত তিন জনকে আটক করেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গতকাল বমির উপসর্গ নিয়ে বিষ্ণুপুর সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তিন মাস বয়সের এক শিশুকে। আজ বিকেলে ওই শিশুর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। শনিবার সন্ধ্যায় শিশুটিকে বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। অভিযোগ এর কিছুক্ষণ পরেই মৃত শিশুর পরিবারের উত্তেজিত লোকজন চড়াও হয় হাসপাতালে চিকিৎসারত জুনিয়র চিকিৎসকদের উপর। জুনিয়র চিকিৎসকদের মারধরও করা হয় বলে অভিযোগ চিকিৎসকদের।

এই ঘটনার প্রতিবাদে রাতেই কর্মবিরতি শুরু করে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজের জুনিয়র চিকিৎসকরা। জুনিয়র চিকিৎসকদের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে বাঁকুড়া সদর থানার পুলিশ মৃত শিশুর বাবা রাজীব রায়, কাকা রাজ রায় ও দাদু মহাদেব রায়কে আটক করে। অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও কঠোর শাস্তির দাবিতে জুনিয়র চিকিৎসকরা কর্মবিরতি চালিয়ে যাচ্ছেন। যদিও অভিযুক্তরা জুনিয়র চিকিৎসকদের উপর মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here