ভ্যাকসিন না পেয়ে কেশিয়াড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২৩ জুন: ভ্যাকসিন না পেয়ে বিক্ষোভ কেশিয়াড়ি গ্রামীণ হাসপাতাল চত্বরে। অনেকেই ভোর রাত থেকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য হাজির ছিলেন কেশিয়াড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে। সময় অনুযায়ী ভ্যাকসিনেশন শুরু হওয়ার পরেই ভ্যাকসিন নিতে আসা ১৮-৪৪ বছর বয়সীরা জানতে পারেন অগ্রাধিকার শ্রেণিভুক্ত ব্যতিত অন্য কেউ টিকা পাবেন না। বিশেষ বিশেষ পেশার সাথে যুক্ত ব্যক্তিরা যারা নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে আবেদন করেছেন তারাই টিকা পাবেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের এই বক্তব্যে অসন্তোষ ছড়ায়। বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন ভ্যাকসিন নিতে আসা বেশ কয়েকজন।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, বুধবার কোন কোন ব্যক্তিদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে-তার একটি বিজ্ঞপ্তি মঙ্গলবার দিয়েছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে মোট ৩০০ জন এদিন ভ্যাকসিন পাবেন। যাদের মধ্যে ১৮-৪৪ বছর বয়সীদের ১০০ জনকে টিকা দেওয়া হবে। কিন্তু বিজ্ঞপ্তি পুরোটা না দেখে সাধারণ অনেকেই চলে আসেন। ফলে গণ্ডগোল বাধে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, ১৮-৪৪ বছর বয়সী সাধারণদের ভ্যাকসিন চালু হয়নি। কিছু অগ্রাধিকার গোষ্ঠীকে এই টিকা দেওয়া হচ্ছে। তার জন্য নির্দিষ্ট নিয়ম মানতে হয়। বিজ্ঞপ্তিতে সে কথা উল্লেখ আছে। তা না দেখেই অহেতুক অনেকেই সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন।

ভ্যাকসিন নিতে আসা মানুষজনের অভিযোগ, রাত দুটো থেকে লাইন দিতে হচ্ছে, সকাল পর্যন্ত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে কোনও কিছু জানানো হয়নি। সাড়ে ন’টার পর ষাটোর্ধ ব্যক্তিদের তালিকা অনুযায়ী ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পাঁচ শতাধিক মানুষ হাজির হওয়া সত্ত্বেও সঠিক বিষয়টি জানানোর ক্ষেত্রে কোনওরকম প্রশাসনিক ভূমিকা ছিল না বলে অভিযোগ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here