কলকাতা সত্যিই একটা সুন্দর সংগ্রহশালা উপহার দিল

অশোক সেনগুপ্ত
আমাদের ভারত, কলকাতা, ২৩ সেপ্টেম্বর: কলকাতা লন্ডন হয়নি। দিঘা হয়নি সুইৎজারল্যান্ড। কিন্তু কলকাতা সত্যিই একটা সুন্দর সংগ্রহশালা উপহার দিল। বিশ্বের বহু শহরে গিয়েছি। স্বাধীনতা সংগ্রামের ওপর এধরণের সংরক্ষণ কোথাও দেখিনি। আদৌ হয়েছে কিনা, জানা নেই।

আলিপুর ও প্রেসিডেন্সি জেলচত্বর ভেঙ্গে ফেলা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ ব্যাপারে সাম্প্রতিক অতীতে বেশ কিছু খবর ও উত্তর সম্পাদকীয় আমি নিজে লিখেছি। বিষয়টা নিয়ে এখনও বিতর্ক চলছে, চলবেও। কিন্তু আলিপুরে যেটা হল, এই মানের একটা ভাবনাকে আমি স্বাগত জানাই। খুঁত ধরার কিছু বিষয় অবশ্যই আছে। কিন্তু সার্বিক মূল্যায়ণের নিরিখে তা যৎসামান্য। ঐতিহ্য সংরক্ষণ নিয়ে গত তিন দশকের ওপর প্রচুর লেখালেখি করেছি। তার ভিত্তিতে এই মন্তব্য করছি।

যেটা বড় কথা, সাধারণ মানুষকে আরও সংগ্রহশালা সম্পর্কে আগ্রহী হতে হবে। সংগ্রহশালামুখী হতে হবে। জাদুঘর, ভিক্টোরিয়া, বিড়লা সংগ্রহশালায় অনেকেই গিয়েছেন। সবিনয়ে প্রশ্ন করব, বারাকপুর গান্ধী সংগ্রহশালা, দক্ষিণ কলকাতার মৌলনা আজাদ সংগ্রহশালা, গোলপার্কে রামকৃষ্ণ মিশনের সংগ্রহশালা, উত্তর কলকাতার গৌড়িয় বৈষ্ণব সংগ্রহশালা, ভগিনী নিবেদিতার বাড়ির সংগ্রহশালার মত অনন্য স্থানগুলো ক’জন ভালভাবে দেখেছেন? ক’জন ওই সব স্থানে নিয়ে গিয়েছেন বহিরাগত স্বজনদের?

আর এগুলো যদি পুকুর হয়, আলিপুরেরটি সাগর। সংশ্লিষ্ট বিষয়টি একটু পড়াশোনা করে, দেখার মত চোখ, অনুভব করার মত মন নিয়ে যাবেন। হাতে যেন যথেষ্ঠ সময় নিয়ে যান। আশা করি আশাহত হবেন না। প্রবেশমূল্য মাথাপিছু ৩০ টাকা (১২-৫)। ধ্বণি ও আলোর জন্য ১০০ টাকা করে (বাংলায়, প্রতিটি ৪০ মিনিট করে। একটি ৬টায়, অপরটি ৭টায়)।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here