হরিশ্চন্দ্রপুরে বন্যার আশঙ্কার মধ্যেই জলা জমি ভরাট করার অভিযোগ জমি মাফিয়ার বিরুদ্ধে

আমাদের ভারত, মালদা, ২৮ জুলাই: বিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে মহানন্দা ও ফুলহার নদী। উত্তর মালদার বিস্তীর্ণ এলাকায় বন্যার আশঙ্কা। এই পরিস্থিতিতে জলা জমি ভরাট করার অভিযোগ উঠল এক জমি মাফিয়ার বিরুদ্ধে। প্রশাসনের নাকের ডগায় চলছে এই ভরাট। এর ফলে উত্তর মালদার অন্যতম হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা সমস্যায় পড়তে পারে। ফলে বিস্তীর্ণ এলাকা নতুন করে প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা। গোটা ঘটনা নিয়ে সরব গ্রামবাসীরা। গোটা বিষয়টি শুনে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলেন মালদা জেলা পরিষদের সহ সভাধিপতি চন্দনা সরকার।

মালদা জেলার উত্তরের অন্যতম অংশ হরিশ্চন্দ্রপুর। প্রতিবছরই হরিশ্চন্দ্রপুর ১ নম্বর ব্লকের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। এরই মধ্যে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার অন্যতম নিকাশি নালা ভরাট করার অভিযোগ উঠল স্থানীয় ব্যবসায়ী বনোয়ারিলাল আগরওলার বিরুদ্ধে। স্থানীয় বাসিন্দা বিপ্লব দাসের অভিযোগ এটি সরকারি জমি ও বেআইনি ভাবে ভরাট করছে ওই ব্যবসায়ী। ওই জায়গাটি দখল করে নির্মাণকার্য চালাচ্ছে সে। এই নিয়ে তিনি স্থানীয় বিডিও থেকে শুরু করে জেলা শাসক ও জেলা পরিষদের অভিযোগ জানিয়েছেন। স্থানীয় বাসিন্দারাও এই নিয়ে সরব হয়েছেন। তাদের দাবি ওই জমি ভরাট হয়ে গেলে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার নিকাশি ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে। ফলে বন্যার জল ঢুকলে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হবে।

যদিও অভিযুক্ত ব্যবসায়ী বনোয়ারিলাল আগরওয়ালা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি তাঁর বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে।
মালদা জেলা পরিষদের সহ-সভাপতি চন্দনা সরকার বলেন, এ ধরনের জলা ভরাট করা বেআইনি। প্রশাসনকে বলব যথাযোগ্য ব্যবস্থা নিতে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here