‘দলের নীতি আদর্শ ছেড়ে তৃণমূলের পথে হাঁটলে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হবে।’ পদাধিকারীদের হুঁশিয়ারি দিলীপের

সাথী দাস, আমাদের ভারত, পুরুলিয়া, ১৭ মার্চ: ‘দলের নীতি আদর্শ ছেড়ে তৃণমূলের পথে হাঁটলে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া হবে।’ এই ভাষাতেই পুরুলিয়ায় সাংগঠনিক বৈঠক করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ।

শুক্রবার, পুরুলিয়া শহরের একটি হোটেলে জেলার ৪৮টি মন্ডল সভাপতি, জেলার মোর্চা সভাপতি ও জেলা কমিটির পদাধিকারীদের সঙ্গে নিয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। বিধানসভা নির্বাচন আর ছয় মাস হাতে ধরে নিয়ে শক্তিশালী সংগঠন করে ভোটযুদ্ধে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে রাজ্য বিজেপি। ‘কোন রেওয়াত নয়, দলের কাজ না করতে পারলে পদ থেকে সরে দাঁড়ান। তেলবাজির কারণে ফাঁকিবাজদের আড়াল করলে পদ খোয়াতে হতে পারে কার্যকর্তাকেও।’ বৈঠকে এই ভাবেই চাঁচাছোলা ভাসায় কথা বলেন বঙ্গ বিজেপির প্রধান সেনাপতি দিলীপ ঘোষ।

উপস্থিত দলের পদাধিকারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘কাজে ফাঁকি দেওয়া চলবে না। আপনার দ্বারা না হয়ে থাকলে জায়গা ছেড়ে দিন, অনেক লোক আছে।’ তিনি পরিষ্কার জানিয়ে দেন দুর্নীতিবাজদের দলে ঠাঁই নেই। তাঁদের চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য জেলা সভাপতিকে নির্দেশ দেন।

আগামী দিনে ও আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে দলের অবস্থান ফের স্মরণ করাতে রাজ্য সভাপতি র  এই বৈঠক বলে মনে করছেন পুরুলিয়া জেলা বিজেপির কার্যকর্তাদের একাংশ। রাজ্য সভাপতি জেলার  কার্যকর্তাদের আরো বেশি করে কার্যক্রম বাড়ানোর নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে মানুষের পাশে দাঁড়াতে এবং কেন্দ্রের সুযোগ-সুবিধা যুক্ত প্রকল্পের কথা তুলে ধরার পরামর্শ দেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। প্রধানমন্ত্রীর চিঠি প্রতিটি বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে জনসংযোগ কর্মসূচিতে রাজ্য সরকারের উপেক্ষা বেশি করে উপস্থাপন করার পরামর্শ দেন  তিনি। বুথ থেকে মণ্ডল স্তর পর্যন্ত কাজের খতিয়ান প্রতিদিন জেলায় পাঠানোর নির্দেশ দিয়ে কার্যত ফাঁকিবাজদের চিহ্নিত করার কৌশল অবলম্বন করলেন তিনি।

এদিনের বৈঠক প্রসঙ্গে জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বলেন, রাজ্য সভাপতি আমাদের পরিষ্কার জানিয়ে দেন যে রাজ্যের মানুষ আমাদের উপর আস্থা রাখছেন। তাঁদের আস্থা ভরসার  উপযুক্ত মর্যাদা দিতে হবে। এছাড়া আরো বেশি করে কর্মসূচির মাধ্যমে জনসংযোগ বাড়িয়ে তুলতে হবে। বৈঠকে রাজ্য সভাপতির সঙ্গে ছিলেন রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here