ঝাড়গ্রামের বড়াম থানটিকে সুন্দর করে তুলতে এগিয়ে এল স্থানীয় যুবকরা

28

অমরজিৎ দে, ঝাড়গ্রাম, ৫ জানুয়ারি : বহু বছর ধরে ঝাড়গ্রাম জেলার সাঁকরাইল ব্লকের কুলটিকরি অঞ্চলের জঙ্গলকুড়চি গ্রামে গাছের নিচে মাটির হাতি, ঘোড়ায় পুজো দেন বড়াম থানে। বহু মানুষ আসেন এই বড়াম থানে পুজো দিতে। এবার সেই বড়াম থানটিকে আরও সুন্দর এবং সুরক্ষিত করে তুলতে এগিয়ে এসেছে স্থানীয় যুবকরা। জাতি-ধর্মের বেড়াজাল পেরিয়ে গ্রামের যুবকরা তৈরি করেছে বড়াম মায়ের থান পুজো কমিটি। এই কমিটির যুবকরা নিজেদের হাতে সুন্দর করে সাজিয়ে তুলছেন বড়াম থানটিকে। গাছের নিচে ওই থানটিকে কংক্রিট দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। বড় কংক্রিটের হাতি ও ঘোড়া দিয়ে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। কুলটিকরি থেকে সাঁকরাইল যাওয়ার রাস্তার একেবারে পাশে মাটি কেটে পোল দিয়ে থানে যাওয়ার রাস্তা করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বিশ্বাস, যখন থেকে এই থান নতুন করে প্রস্তুত করা হচ্ছে, তখন থেকে দুর্ঘটনার প্রবণতাও কমেছে।পাশাপাশি তারা জঙ্গল বাঁচানোর বার্তাও দিচ্ছে। জঙ্গলে জঞ্জাল ফেলা যাবে না, জঙ্গলকে রাখতে হবে সুরক্ষিত। স্থানীয় যুবকদের এই উদ্যোগে অনেকটাই খুশি ওই এলাকার মানুষ। এই স্থানটিকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে কমিটির যুবকরা তহবিল সংগ্রহ করছে। যে যার সাধ্যমতো চাঁদা দিচ্ছেন। কোনও জোর জবরদস্তি নেই। গ্রামের মানুষ স্বেচ্ছায় এগিয়ে এসেছেন যুবকদের উদ্যোগকে স্বাগত জানাতে। মকর সংক্রান্তির দিন এখানে পুজো দিতে, মানত করতে প্রচুর মানুষ আসেন। বড়াম মায়ের থান পুজো কমিটির সদস্যদের লক্ষ্য একটাই মায়ের এই থানটিকে আরো সুন্দর করে তোলা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here