করোনা ইউনিট চালু করার বিরুদ্ধে কামারহাটির সাগরদত্ত হাসপাতালে এবার বিক্ষোভ-অবরোধ স্থানীয়দের

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৫ জুন: ৫০০ শয্যার করোনা ইউনিট সাগর দত্ত হাসপাতালে চালু হওয়ার ঘোষণার পর থেকেই প্রতিবাদ করছিলেন ওই মেডিকেল কলেজের পড়ুয়ারা। এবার হাসপাতালের সামনে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘিরে সোমবার সকালে তুলকালাম কাণ্ড বেঁধে গেল হাসপাতাল চত্বরে। এই হাসপাতালে করোনা ইউনিট চালু হলে হাসপাতালে স্বাভাবিক পরিষেবা ব্যাহত হবে, এই দাবিতে সোমবার সকালে দফায় দফায় সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে বি টি রোডে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এদিকে বিক্ষোভকারীদের ওপর স্থানীয় কিছু যুবক আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে ছুটে যেতে হয় খড়দহ থানার পুলিশকে।

প্রসঙ্গত, বহুদিন আগে এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা বিবেচনা হতেই তখনও বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এবার ফের রাজ্য সরকার ঘোষণার পর পড়াশোনা ব্যাহত হবে এই দাবি নিয়ে হাসপাতালের ভিতরে কিছুদিন আগেই পড়ুয়ারা ধর্নায় বসেন। আর এবার বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলেন এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারাও। বাসিন্দাদের অভিযোগ,“দীর্ঘদিন ধরে কামার হাটি সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মানুষ অনেক চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছে না। অবিলম্বে এই হাসপাতালের সবকটি বিভাগে চিকিৎসা পরিষেবা চালু করতে হবে। এর মধ্যে কোভিড ইউনিট চালু হলে হাসপাতালে স্বাভাবিক পরিষেবা ব্যবহৃত হবে।”

প্রসঙ্গত, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় কামারহাটি সাগরদত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একটা অংশ ব্যবহার করে সেখানে করোনা আক্রান্তদের ভর্তি করে তাদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হবে। এই নিয়েই এদিন কামারহাটি অঞ্চলের যে বাসিন্দারা হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ দেখান। তাদের দাবি, এই হাসপাতালের যে অংশে সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হবে, সেই অংশে যেন কোনও ভাবেই কোভিড আক্রান্তদের না রাখা হয়। তারা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ব্যাখ্যা চান কোভিড রোগীদের কোথায় রাখা হবে, কত সংখ্যক কোভিড রোগীর এখানে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হবে ইত্যাদি। এই প্রসঙ্গে বিক্ষোকারীদের এক প্রতিনিধি দল হাসপাতালে গিয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করেন। তাদের কাছে স্মারকলিপি জমা দেন। হাসপাতাল কতৃর্পক্ষের ব্যাখ্যায় তারা কিছুটা সন্তুষ্ট বলেও দাবি করেন।

এদিকে এই সময়েই বিক্ষোভকারীদের পক্ষ থেকে হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় তৃণমূলের একটি দলীয় কার্যালয়ে কোল্ড ড্রিঙ্কস-এর বোতল ছুঁড়ে মারা হয় বলে অভিযোগ। এরপর নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে সাগর দত্ত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে।অভিযোগ, বিক্ষোভকারীদের উপর চড়াও হয় স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা। তারা লাঠি হাতে ধাওয়া করে হাসপাতালের সামনে জড়ো হওয়া বিক্ষোভারীদের হঠিয়ে দেয়। এই নিয়ে অশান্তি ছড়ায় হাসপাতাল চত্বরে। বিষয়টি তারা করেননি এবং পরিকল্পনামাফিক ঘটানো হয়েছে বলে দাবি করেন বিক্ষোভকারীরা। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভের ওপর কিছু যুবক আক্রমণ করলেও পুলিশ কোনও হস্তক্ষেপ না করায় ক্ষুব্ধ হন বিক্ষোভকারীরা। ঘটনার জেরে হাসপাতাল চত্ত্বরে বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। বিষয়টি নিয়ে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন স্থানীয় সিপিএম এবং বিজেপি নেতৃত্বও।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here