লক ডাউনে রোজগার নেই, পাঁচ সন্তানকে ভাসিয়ে দিয়ে মায়ের মরণ ঝাঁপ গঙ্গায়

আমাদের ভারত, ১৩ এপ্রিল: দিন আনা দিন খাওয়া ঠিকা শ্রমিক মা। কাজ করে ফিরে দিনের আয় দিয়ে কোনোক্রমে পাঁচ সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিতেন কিন্তু করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের কারণে বন্ধ ঠিকা শ্রমিকের কাজ। ফলে অথৈ জলে মা। পাঁচ সন্তানের মুখে তুলে দেওয়ার মতো খাবার নেই। শেষ পর্য্যন্ত উপায় না দেখে ৫ সন্তানকে জলে ভাসিয়ে নিজেও ঝাঁপ দিলেন গঙ্গায়। রবিবার এমনই মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল উত্তরপ্রদেশের ভাদহি জেলার জেহাঙ্গিরাবাদ।

জানা গেছে,রবিবার সকালে জেহাঙ্গিরাবাদে গঙ্গার ঘাটে পাঁচ সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে আসে ওই মহিলা। তারপর তাদের ঠেলে ফেলে দেন গঙ্গার জলে। নিজেও ঝাঁপ দেন গঙ্গায়। লকডাউন চলছে তাই ঘাটের বেশি লোক ছিল না। মুহূর্তে জলে তলিয়ে যায় ৫শিশু। পরে জানা কয়েক প্রত্যক্ষদর্শী উদ্ধার করেন ওই মহিলাকে। তারাই পুলিশকর্মীদের খবর দেন।পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩৬ বছরের মহিলাকে গ্রেফতার করে। কিন্তু এখনোও হদিস নেই ওই পাঁচ শিশুর। গঙ্গায় ডুবুরি নামিয়ে চলছে খোঁজ।

গোটা ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। গঙ্গার পাড়ে জরো হয়ে যায় স্থানীয়রা। পুলিশ হিমশিম খায় ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে।

এদিকে জেরায় ওই মহিলা জানিয়েছেন, ঠিকা শ্রমিকের কাজ করি। তাই দিয়ে দিন চলত। কিন্তু লকডাউনের ফলে কাজ বন্ধ। ফলে যতটুকু আয় হতো তা বন্ধ হয়ে গেছে।কোনভাবেই পাঁচ সন্তানের মুখে খাবার তুলে দিতে পারছিলেন না। তাই তাদের গঙ্গায় ভাসিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন তিনি।

যদিও পুলিশ বলেছে মহিলার কথায় অসংলগ্নতা রয়েছে। মানসিক ভারসাম্যহীন কিনা ঐ মহিলা তাও যাচাই করা হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে পাঁচ শিশুকে উদ্ধার করার চেষ্টা করছে পুলিশ। এই ঘটনার পেছনে অন্য কোনো কারণ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here