জাতিভেদ প্রথার জের! একই ওড়নায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী পুরুলিয়ার প্রেমিক প্রেমিকা

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ২২ জুন: প্রেমের সম্পর্ক দুই পরিবার না মানায় প্রেমিক প্রেমিকা আত্মঘাতী হলেন।
জাতপাতের গেঁরোয় যুগলের মর্মান্তিক আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়া জেলার কেন্দা থানার ভান্ডারপুয়াড়া গ্ৰামে। সোমবার সকালে একই ওড়নায় গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত দেহদুটি উদ্ধার করল পুলিশ। মৃত যুগলের নাম অনুপ রাজোয়াড় ও নয়নমণি মন্ডল।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে কেন্দা থানার নাড়ুডি গ্ৰামের কাছে কাঁসাই নদীর তীরে একটি করঞ্জ গাছের ডালে ঝুলন্ত দেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় মানুষ জানান, ভান্ডারপুয়াড়া গ্ৰামের বছর উনিশের যুবতীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল একুশ বছর বয়সী যুবকটির। কিছুদিন আগে যুবকটি চেন্নাইয়ে কাজ করতে গিয়েছিল। তখনও  দুজনের নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। এদিকে ভিন জাতের ছেলের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেবে না বলে যুবতীর পরিবার তার অন্যত্র বিবাহের ঠিক করে। আগামী বৃহস্পতিবার সেই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। এদিকে অন্যান্য পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে মেয়েটির প্রেমিক গ্ৰামে ফিরে এলে দু’জনের আবার ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। কিন্তু প্রেমিক প্রেমিকা কিছুতেই তাঁদের পরিবারকে বিয়েতে রাজি করাতে পারেনি। সোমবার ভোররাতে দুজনেই বাড়ি থেকে বেরিয়ে অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। পুলিশ দেহগুলি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here