বাংলার করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে বুধবার ফের সর্বদল বৈঠক ডাকলেন মমতা

রাজেন রায়, কলকাতা, ২২ মার্চ: বাংলায় পরিযায়ী শ্রমিক আসা থামলেও করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ দিকে মোড় নিচ্ছে। সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই বাংলায় করোনায় টেস্টের সংখ্যা এবং সুস্থতার হার বেড়েছে। কিন্তু সংক্রমণের হার এখনও কমেনি। এই পরিস্থিতিতে বাংলার স্বার্থের সমস্ত রাজনৈতিক দলের মতামত প্রয়োজন বলে মনে করেছে প্রশাসনিক শীর্ষ মহল। তাই ফের করোনা মোকাবিলায় বিরোধীদের পরামর্শ চাইতে আবার একবার সর্বদল বৈঠক ডাকলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জানা গিয়েছে, বুধবার বিকেলে নবান্ন সভাঘরে ওই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। এই জরুরি পরিস্থিতিতে সমস্ত রাজনৈতিক দলের বক্তব্য শুনতে চায় প্রশাসন। শাসকদলের কি কি কার্যকলাপে বিরোধী দলগুলির আপত্তি রয়েছে, সেই বিষয়েও মতামত জানতে চায়। তাই বিধানসভায় প্রতিনিধিত্ব রয়েছে, এমন সমস্ত দলের নেতাদের ছাড়াও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বকে।

এর আগে লকডাউন শুরুর সময় সর্বদল বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তাতে হাজির হয়েছিল সমস্ত রাজনৈতিক দল। করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের প্রতি তখন সম্পূর্ণ আস্থা জানিয়েছিল সমস্ত দলই। তিন মাস পর ফের সর্বদল বৈঠক ডাকলেন মমতা।

নবান্ন সূত্রে খবর, প্রথমে বুধবারের ওই বৈঠক বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে ডাকার প্রস্তাব দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তাঁর ঘরে অত লোকের সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং বজায় রেখে বৈঠক করা সম্ভব হবে না বলে জানান বিমানবাবু। এর পর নবান্ন সভাঘরে বৈঠক স্থানান্তরিত করা হয়। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, এর আগে সরকারের প্রতি আস্থা রাখো এখন আমফান দুর্নীতি থেকে করোনা টেস্টে দুর্নীতির মতো একাধিক বিষয় সরব হতে পারেন বিরোধীরা। তাই বুধবার সর্বদলীয় বৈঠক উত্তপ্ত আবহ নিতে পারে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here