সৌজন্যের বৈঠকে হাসিনাকে কলকাতায় আসার আমন্ত্রণ জানালেন মমতা

নীল বনিক, আমাদের ভারত, কলকাতা: ফের রাজ্যে আসার জন্য শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রন জানালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার শহরের একটি বেসরকারি পাঁচতারা হোটেলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বৈঠক করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। যদিও বৈঠক সৌজন্য মূলক ছিল বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের বরাবর সৌজন্যমূলক সম্পর্ক ছিল। সেই সম্পর্ক আরও দূর পর্যন্ত যাক তা আমরা সবাই চাই।

ভারতের সঙ্গে সৌজন্যমূলক সম্পর্কের কথা শোনা গেল শেখ হাসিনার গলাতেও। তিনি বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বলেন, মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান ছিল। তা আমরা কখনই অস্বীকার করতে পারি না। বাংলাদেশ সবসময় প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে মধুর সম্পর্ক রাখতে চায়। তবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে এনআরসির মতো বিতর্কিত প্রশ্ন করতেই, অস্বস্তি প্রকাশ করেন তিনি। এনআরসি নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের কোনও উত্তর দেননি হাসিনা। ইডেনে গোলাপি বলে টেষ্টম্যাচের আয়োজন নিয়ে অবশ্য সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। শেখ হাসিনা বলেন, ঐতিহাসিক মুহূর্তে থাকতে পেরে আমার ভালো লাগছে। আশা করবো উপমাহাদেশে গোলাপি বলে টেষ্ট আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে।

তিস্তা চুক্তি নিয়ে মমতার সঙ্গে একটা দূরত্ব তৈরি হয়েছিল বাংলাদেশের। তিস্তা চুক্তি করতে চেয়ে বারবার দিল্লিকে চাপ দিয়েছেন হাসিনা। দিল্লি রাজি থাকলেও মমতাই তিস্তা চুক্তিতে বারবার জল ঢেলেছে। তার আপত্তিতেই তিস্তা চুক্তি আজও সম্পর্ণ হয়নি। যা নিয়ে বারবার অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে এদিন মমতার সঙ্গে বৈঠকে তার বিন্দুমাত্র রেশ পরেনি। খোলা মনে হাসিনা, মমতা দুজনেই দুজনের প্রশংসা করেছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here