মেয়ের জন্মদিনে বস্ত্রদান করলেন রামপুরহাটের মণ্ডল পরিবার

আশিস মণ্ডল, রামপুরহাট, ১৫ অক্টোবর: কথা ছিল ধুমাধাম করে পালন করবেন মেয়ের ষষ্ঠতম জন্মদিন। কিন্তু করোনা আবহে সেই ইচ্ছা সিন্দুকে বন্ধ রেখে দুঃস্থদের পাশে দাঁড়ালেন এক ওষুধ ব্যবসায়ী। একই সঙ্গে পুজোর আগে পরিবার পিছু ১০ কেজি করে চাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন তিনি।

বিজয় কৃষ্ণ মণ্ডল। বাড়ি রামপুরহাট পুরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের চাঁদমারি পাড়ায়। পেশায় ওষুধ ব্যবসায়ী বিজয়বাবুর দুই ছেলেমেয়ে। বড় ছেলে শুভদীপ সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। ছোট মেয়ে অনুষ্কা নার্সারির ছাত্রী। বৃহস্পতিবার ছিল তার ষষ্ঠতম জন্মবার্ষিকী। অন্যান্যবার আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী নিয়ে তিন শতাধিক মানুষকে আমন্ত্রণ জানিয়ে ভুরি ভোজ করাতেন। কিন্তু এবার করোনা মহামারির কারণে অধিক সংখ্যক মানুষের জমায়েতের উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তার উপর মহামারির কারণে বহু মানুষ পুজোয় নতুন কাপড় টুকুও কিনতে পারেননি। সেই কথা চিন্তা করে এবার জন্মদিনে অনুষ্ঠান বন্ধ রেখে মানুষের পাশে দাঁড়ালেন মণ্ডল পরিবার।

বিজয়বাবু বলেন, “অন্যানবার ছেলে ও মেয়ের জন্মদিনে ঘটা করে অনুষ্ঠান করে থাকি। কিন্তু এবার দেখলাম কাজ হারিয়ে মানুষ সব দিন দুমুঠো খেতে পাই না। বাঙালির বড় উৎসবে অনেকে নতুন কাপড় কিনতে পারেননি। সেই সব চিন্তা করে অনুষ্ঠান বাতিল করে প্রতিবেশীদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলাম। তাই মেয়ের হাত দিয়েই ৯৫০ জন দুঃস্থ মহিলাদের হাতে তাঁতের শাড়ি তুলে দিলাম। পুজোর আগে প্রত্যেক পরিবারকে ১০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে। যাতে পুজো কটা দিন কেউ অর্ধাহারে না থাকেন”।

এলাকার বাসিন্দা মুনি মাড্ডি বলেন, “পুজোর মুখে নতুন শাড়ি পেয়ে ভালো লাগছে। অনুষ্কাকে আশীর্বাদ করব বড় হয়ে বাবার মতো মানুষের পাশে থেকো”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here