প্রয়াত ফুটবলের যাদুকর দিয়াগো মারাদোনা

আমাদের ভারত, ২৫ নভেম্বর:প্রয়াত ফুটবলের ভগবান দিয়াগো মারাদোনা। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ৬০ বছর বয়সে চিরকালের জন্য চলে গেলেন ফুটবলেরএই সর্বকালের নায়ক। শোকস্তব্ধ সারা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমী মানুষ।

দু’সপ্তাহ আগে বাড়িতে হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল তার। রাতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ব্রেনের রক্ত জমাট বেধে ছিল। অস্ত্রপ্রচারে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মারাদোনার চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচার সফল হয়েছিল ফুটবলের রাজপুত্রের হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন তিনি। কিন্তু বাড়ি ফেরার পর আবার একবার হার্ট অ্যাটাক হয় তার। আর তারপরই লড়াই শেষ।

সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার মারাদনা। তার হাত ধরেই ১৯৮৬ সালের ফুটবল বিশ্বকাপ আর্জেন্টিনার হাতে গিয়েছিল। বোকা যুনিয়র্স ,নাপোলি এবং বার্সেলোনার হয়ে ক্লাব ফুটবল খেলেছেন তিনি। বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী তাকে ভগবানের চোখে দেখেন। আর ফুটবলের ভগবান এরই হঠাৎ প্রয়াণে শোকস্তব্ধ বিশ্ববাসী।

এখনো অনেকে মেনে নিতে পারছেন না ফুটবলের রাজপুত্র আর নেই। ১১ নভেম্বর সন্ধ্যে ছটায় তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হয়। একঝলক তাকে দেখবেন বলে অসংখ্য ফুটবলপ্রেমী মানুষ রাস্তায় ভিড় করেছিলেন।

একাধিক বিতর্ক ফুটবলের নায়ককে ঘিরেছিল। কখনো মারিযুয়ানা, তো কখনো অ্যালকোহলের নেশায় তার নাম জড়িয়েছে। জীবনে একাধিক বান্ধবীর কথা শোনা যায়। খেলার মাঠ ছাড়ার পর থেকেই তার বেহিসেবি জীবনযাত্রাও শিরোনাম হয়েছে খবরের। ২০০৫ সালে ওজন কমানোর জন্য অপারেশন হয় তার। দু’বছর আগে অ্যালকোহলজনিত হেপাটাইটিস এর জন্য হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। ২০০০ সালেও একবার মারাত্মক ভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি।

ফুটবলের এই ভগবান একাধিকবার কলকাতায় এসেছেন। তাকে ঘিরে উত্তাল হয়েছে কলকাতা তথা বাংলার ফুটবল প্রেমী মানুষ। বামপন্থার সঙ্গে ছিল তাঁর অবিচ্ছেদ্য নিবিড় সম্পর্ক।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here