আমফানে পশ্চিম মেদিনীপুরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ও দু’জনের মৃত্যু 

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২১ মে: আমফানের দাপটে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। জেলার বিভিন্ন ব্লকে আট হাজার দুশো নিরানব্বইটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানানো হয়েছে। জেলার মোট এক হাজার একটি আশ্রয় শিবিরে রাখা হয়েছে পঁয়ষট্টি হাজার মানুষকে।

গতকালের ঝড়ে বাড়িতে গাছ ভেঙ্গে পড়ায়  মোহনপুর ব্লকের বাগদা গ্রামের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী নবকুমার পাত্র এবং পিংলা ব্লকের রাউচক গ্রামের ২৭ বছরের যুবক রবিন পূর্তির মৃত্যু হয়েছে। গাছ পড়ে মারাত্মকভাবে আহত হওয়া নবকুমারকে উদ্ধার করে প্রথমে এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে সঙ্কটজনক অবস্থায় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কলকাতার পি.জি হাসপাতালে পাঠানো হয়। আজ ভোর ৫টায় সেখানেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। নবকুমার এবছরই মোহনপুর হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিল।

পিংলা ব্লকের রাউচক গ্রামের যুবক রবিন পূর্তির বাড়ির ওপর একটি পুরনো গাছ ভেঙ্গে পড়ে। ঘটনার আকস্মিকতায় হৃদরোগে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। পশ্চিম মেদিনীপুরের অতিরিক্ত জেলা শাসক জানিয়েছেন, জেলার সমস্ত ব্লকগুলি থেকে এখনো  সম্পূর্ণ ক্ষয়ক্ষতির খবর এসে পৌঁছায়নি। সমস্ত দিক খতিয়ে দেখছে জেলা প্রশাসন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here