এবার করোনায় আক্রান্ত মন্ত্রীও

আমাদের ভারত, ২৪ এপ্রিল: এবার করোনায় আক্রান্ত হলেন মহারাষ্ট্রে আবাসন মন্ত্রীর জিতেন্দ্র আওহাদ। তার লালারস পরীক্ষার রিপোর্ট করোনা পজিটিভ এসেছে। মহারাষ্ট্রের থানেতে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাকে। একাধিক সূত্র থেকে তিনি সংক্রমিত হতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

এক সপ্তাহ মতো তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। তার বাড়ির অন্যান্য ১৫ জন সদস্যও হোম করেন টাইমে ছিলেন। এনসিপির এই প্রবীণ নেতার প্রথম বারের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও, কয়েক দিন পরে করা রিপোর্ট পজিটিভ আসতেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে কিছুদিন আগে মন্ত্রীর এক নিরাপত্তারক্ষী করোনায় আক্রান্ত হন। তারপর থেকেই আইসোলেশনে চলে যান জিতেন্দ্র আওহাদ। মন্ত্রির বাড়ির সামনে একটি চায়ের দোকানে নিয়মিত চা খেতেন মন্ত্রীর নিরাপত্তা রক্ষীরা। ওই চা- ওয়ালা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তার থেকে মন্ত্রীর নিরাপত্তা রক্ষী আক্রান্ত হয়েছে বলে অনুমান।

এছাড়াও অনুমান করা হচ্ছে, মুম্বাইয়ে থানার এক উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিকের সঙ্গে সাক্ষাতের পরই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মন্ত্রী। লকডাউনে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে পর্যালোচনা করতেই মন্ত্রী দেখা করেছিলেন ওই পুলিশ আধিকারিকের সঙ্গে। ওই পুলিশ আধিকারিক করোনিয় আক্রান্ত হন। মুম্বাই লুকিয়ে থাকা কয়েকজন তাবলিগি জামাতের সদস্যকে খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছিলেন এই আধিকারিক। জামাত সদস্যদের সংস্পর্শে আসার পর পর করোনা পরীক্ষা করলেও তার কিছুই ধরা পড়েনি। পরে আবার পরীক্ষা করা হলে দেখা যায় ওই পুলিশ আধিকারিক করোনায় আক্রান্ত ।

মহারাষ্ট্রের থানে এলাকায় ব্যাপক হারে সংক্রমণ ছড়িয়েছে। পুলিশ আধিকারিক এবং আবাসনমন্ত্রীর সংস্পর্শে আসা প্রায় ১০০ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যাদের মধ্যে তিন পুলিশকর্মী, ২ জন সাংবাদিক এবং ১৪ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। এদের সকলকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। জিতেন্দ্র আওহাদের ৫ নিরাপত্তারক্ষী, পরিচারক, রাঁধুনী এবং দলের সদস্যদের শরীরেও করোনা ধরা পড়েছে।

এনসিপির আরেক সদস্য ও প্রাক্তন সাংসদ আর আনন্দেরও করোনা পজিটিভ হবায আশঙ্কা করা হচ্ছে। কারণ জিতেন্দ্র আওহাদ কিছুদিন আগেই তার সঙ্গে দেখা করেছিলেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here