মানুষকে সচেতন করতে মাস্ক হাতে বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক

সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, বনগাঁ, ৪ এপ্রিল: গত কয়েক দিনে দেশ জুড়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা ঠেকাতে বেশ কিছু দাওয়াই দিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর। তার মধ্যে প্রধান দুটি হল— মাস্কের ব্যবহার এবং সাবান দিয়ে হাত ধোওয়া। এখন ওই দুটি জিনিসকে হাতিয়ার করেই মাঠে নেমে পড়েছেন রাজনৈতিক নেতারা।

উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক বিশ্বজিত দাস, গত কয়েক দিন ধরে কয়েক হাজার মাস্ক ও সাবান বিলি করেছেন। স্যানিটাইজার বিলির ইচ্ছা ছিল। তবে চাহিদা অনুযায়ী স্যানিটাইজার না মেলায় আপাতত বন্ধ ওই কর্মসূচি। বিধায়ক বিশ্বজিত দাসের কথায়, ‘‘প্রায় তিন হাজার মাস্ক বিলি করেছি। আরও এক হাজার অর্ডার করেছি। এখনও হাতে পাইনি। তিনি বলেন, মানুষ যদি নিজে না সচেতন হয় তাহলে এক সময় ঘরে ঘরে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে।

পাশাপাশি বনগাঁর সৈকত মিত্র ও স্বপ্না মিত্র এদিন বনগাঁর লাইনের পাশে থাকা প্রায় তিনশো পরিবারের হাতে চাল, ডাল, আলু সহ খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন। সৈকতবাবু বলেন, নিজেদের অর্থে কিছু অসহায় পরিবারের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিলাম। লকডাউনের ফলে সকলেই বাড়িতে। দীর্ঘদিন লকডাউন থাকায় উপার্জনের টাকাও শেষ। রেশন থেকে যে চাল গম দেয় তাতে সারা মাস চলে না। তাই তাদের কথা মাথায় রেখে এই অনুদান।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here