সংযমী না উদ্দামতা, কোন সেক্স উপকারী

আমাদের ভারত, ১৯ নভেম্বর: মানুষের মনে যৌনতা নিয়ে বিচিত্র চিন্তা কাজ করে। অনেকের কাছে সেক্স প্রায় অসম্ভব বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। এই ক্ষেত্রে বেশির ভাগ মানুষের মনে একটা ভুল ধারণা কাজ করে। তা হলো, সেক্স মানেই অস্থিরতাপূর্ণ কোনও কর্মকাণ্ড। তারপরও পরিমিত বা সংযমী সেক্স অতি জরুরি বিষয়।

ব্রিটেনের এক গবেষণায় দেখা গেছে, ৬৭ শতাংশ মানুষ কখনোই সংযমী হয়ে যৌনকর্ম করে না। যদিও এ ধরনের সেক্স উপভোগ্য বলেই মনে হয়। কিন্তু যতটা মনে হয় তার চেয়ে অনেক বেশি উপভোগ্য হয়। তবে, অসংযমী সেক্স কি সত্যিই আনন্দদায়ক?

১.  ‘টেম্পটার’-এর ওই গবেষণায় বলা হয়, ২৯ মানুষ শতাংশ সেক্স করার শুরুতেই অনুতাপে ভোগে। এর একমাত্র কারণ, তাদের সেক্স সংযমী ছিল না। তারা অস্থিরতাপূর্ণ সেক্সে জড়িত হয়েছিলেন। যৌনতার পর সাধারণত এসব আবেগ কাজ করে।

২.  সেক্স এক্সপার্ট ট্রেসি কক্স জানান, সেক্সের পর কোনও মানুষ,  ব্যক্তি হিসাবে কেমন তা নির্ভর করে তার যৌন আচরণের ওপর। সংযমী সেক্সের ক্ষেত্রে যে কেউ সংযত ও ভদ্র বিবেচিত হবেন।

৩.  অনেকেই একাধিক মানুষের সঙ্গে সেক্সের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। পরিমিত সেক্স যাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ, তারা একাধিক মানুষের প্রতি আসক্ত হন না। আর এটা একটা দারুণ চারিত্রিক গুণ।

৪. ধৈর্যের যৌনতা উপভোগ্য হয়। ধীর স্থির ও ভদ্রোচিত আচরণ এ ক্ষেত্রে কাম্য। দুজনের মনেই তৃপ্তি কাজ করে। বুনো স্বভাব সব সময় আগ্রাসী হয়ে থাকে।

৫.  ২০১৪ সালের এক গবেষণায় বলা হয়, অ্যালকোহল খেয়ে সেক্স করলে সুখকর অনুভূতি হলেও অক্সিটোসিন, ডোপামেইন এবং অন্যান্য হরমোনের ক্ষরণ ঘটে। আর সেক্স যদি হয় সংযমী তবে তা আরো সুখকর অনুভূতি এনে দেয়।

৬.  অনেকের ধারণা অ্যালকোহল সেক্সের দারুণ সঙ্গী। এটা সত্যি যে অ্যালকোহল আকাঙ্ক্ষা বৃদ্ধি করে। কিন্তু এতে পারফরমেন্স কমে আসে। অর্থাৎ সক্ষমতা হারিয়ে যায়। উভয়ের কাছে আবেদন হারায় যৌনতা। যারা সংযমী তারা যৌনতাকে উপভোগ্য করতে অ্যালকোহলের আশ্রয় নেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here