ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে ভারতের অর্থনীতি, বিশ্ব মঞ্চ থেকে বিনিয়োগের আহ্বান মোদীর

আমাদের ভারত, ৯ জুলাই: করোনা মোকাবিলা এবং লকডাউনের কারণে বেহাল অর্থনীতি চাঙ্গা করতে “আত্মনির্ভর ভারত অভিযান” প্রকল্পে ২০ লক্ষ টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে ভারত সরকার। এবার আন্তর্জাতিক মঞ্চে আত্মনির্ভরতার পক্ষে সওয়াল করেন মোদী। তিনি বলেন আত্মনির্ভর ভারতের অর্থ আত্মকেন্দ্রিক নয় বরং সবাইকে আত্মনির্ভর করে তোলার প্রচেষ্টা। তার দাবি ভারতের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানো শুরু করেছে। তাই বিশ্বমঞ্চ থেকে তিনি বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন। বৃটেনের আয়োজিত ইন্ডিয়া গ্লোবাল সম্মেলনে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় ভারত অন্য অনেক দেশের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বলে বরাবরই দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সেই দাবির সঙ্গে দেশের ওষুধ প্রস্তুতকারী ও গবেষণা সংস্থা গুলির প্রশংসা করেন তিনি। মোদী বলেন, “করোনা মহামারী আমাদের ফের দেখিয়ে দিয়েছে ওষুধ প্রস্তুতকারী ও গবেষণা সংস্থা গুলি আমাদের দেশের সম্পদ। এই সংস্থা গুলি দেশের পাশাপাশি উন্নয়নশীল দেশগুলিতে ওষুধের দাম কমানোর ক্ষেত্রে অনেক অবদান রেখেছে।”

অন্যান্য বহু সংকটের মধ্যেই করোনা ভাইরাস এবং অর্থনৈতিক সংকটকে যে ভারত কাটিয়ে উঠবে তা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তার কথায়, “অসম্ভব কে সম্ভব করার চেষ্টাই ভারতের স্পিরিট। এটা আশ্চর্যের কিছু নয় যে আমরা অর্থনৈতিক দিক থেকে ঘুরে দাঁড়াচ্ছি”।

বিশ্ববাসীর পাশে থাকার বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব অর্থনীতি ও বিশ্ব কল্যাণের জন্য ভারত সব সময় সব কিছু করতে প্রস্তুত। আজকের ভারত সংস্কার ও পরিবর্তনে বিশ্বাসী।

এদিন প্রধানমন্ত্রী দাবি করেন অর্থনীতিতে ভারত ঘুরে দাঁড়ানো শুরু করেছে। ভারতে বিনিয়োগের জন্য সারা বিশ্বকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন,। ” সারা বিশ্বের কোম্পানিগুলির জন্য আমরা রেড কার্পেট বিছিয়ে দিচ্ছি। আপনারা আসুন এবং ভারতে আপনাদের উপস্থিতি গড়ে তুলুন। আজ ভারত আপনাদের যে প্রস্তাব দিচ্ছে তা খুব কম দেশ দিতে পারবে।”

তিনি আরোও বলেন,”ভারতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সুযোগ আছে। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করা যেতে পারে। মহাকাশ গবেষণার ক্ষেত্র এখন বিদেশি বিনিয়োগের সুযোগ অনেক বেড়েছে। ফলে মহাকাশ প্রযুক্তির ব্যবহারের উপকারও আরো বেশি করে সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া সম্ভব।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here