বাংলায় শুরু হবে মোদীরাজ, পুলিশের জন্য হবে পাঁচ খানা নতুন জেলখানা, বললেন বিজয়বর্গীয়র

আমাদের ভারত, পূর্ব বর্ধমান, ২৯ সেপ্টেম্বর:
দেশ জুড়ে মোদী রাজ চলছে। এবার শুরু হবে বাংলায় মোদীরাজ। দুর্নীতিগ্রস্থ পুলিশ অফিসারদের জেলে পাঠানো হবে। বর্ধমানে এসে এভাবেই পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয় বর্গীয়।

তিনি বলেন, কৃষি বিল নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের কথা ভেবে যে কৃষি বিল পাস করেছে তাতে কৃষকরা ফসলের ন্যায্য দাম পাবেন। কৃষকরা উপকৃত হবেন। আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার কাটমানি খাওয়ার সরকার। তাদের আঁতে ঘা পড়তেই তারা কৃষি বিল নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাতে শুরু করেছেন।

মঙ্গলবার সন্ধে নাগাদ পূর্ব বর্ধমানের রায়নার বড় বৈনানের দলীয় জনসভা থেকে বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় পুলিশকেও একহাত নেন।

পুলিশের উদ্দেশ্যে কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, মাথায় রেখো পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সরকার আসতে চলেছে। যেসব পুলিশ আধিকারিক দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত, যারা তৃণমূলের কথায় উঠবস করছে তাদের আমরা চিহ্নিত করে রাখছি। মনে রাখবে বিজেপি ক্ষমতায় এলে দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ অফিসারদের চাকরি করা মুশকিল হয়ে যাবে। আমরা ক্ষমতায় এলে সর্বপ্রথম চার পাঁচ খানা নতুন করে জেলখানা তৈরি করব। এইসব দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ অফিসারদের ওইসব জেলে পাঠাবো। তবে যেসব পুলিশ আধিকারিক এখনো ঠিক ভাবে কাজ-কর্ম করে চলেছে বিজেপি ক্ষমতায় এলে তাদের পুরস্কৃত করা হবে। অন্যদিকে যেসব পুলিশ আধিকারিক মমতা ব্যানার্জির আঁচলের তলায় এসে ভারতের সংবিধানকে মানছে না, মমতা ব্যানার্জি যা বলছে সেটাকে তারা সংবিধান বলে মনে করছে, সেইসব পুলিশ আধিকারিকদের আগে আমরা জেলে ভরবো। তাই কেউ ভয় পাবেন না। পশ্চিমবঙ্গে নরেন্দ্র মোদী সরকার আসবে। নরেন্দ্র মোদীর রাজ চলবে।

এদিনের জনসভা থেকে নবান্ন অভিযানে সামিল হওয়ার ডাক দেওয়া হয়। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায় বলেন, রায়না অঞ্চলের প্রতিটা মাটির কনা আমার চেনা। বিধানসভা নির্বাচনে এলাকার ফল সম্পূর্ণ বদলে যাবে। তাই এখন থেকেই সবাইকে জোট বদ্ধ হয়ে লড়াই করতে হবে। ৮ ই অক্টোবর নবান্ন অভিযান দিয়েই শুরু হবে রায়না থেকে পথ চলা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here