আধা ঘন্টার বৃষ্টিতে জলমগ্ন রায়গঞ্জের অধিকাংশ এলাকা, জল নিকাশি নিয়ে ক্ষুব্ধ বিধায়ক

স্বরূপ দত্ত, আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ২৭ জুলাই: আধা ঘন্টার বৃষ্টিতে রায়গঞ্জ শহরের অধিকাংশ এলাকা জলমগ্ন। রায়গঞ্জের বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্তের বীরনগরের বাড়ির সামনে একহাঁটু জল। জল নিকাশী ব্যবস্থা নিয়ে পৌরসভার কোনও উদ্যোগ না থাকায় ক্ষুব্ধ বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত।

আজ দুপুরে আধ ঘন্টা প্রবল বৃষ্টি হয়। বৃষ্টিতে রায়গঞ্জ পৌর এলাকার শক্তিনগর, বীরনগর, অশোকপল্লি সহ বেশ কিছু এলাকায় জল জমে যায়। রায়গঞ্জ হাসপাতাল যাবার রাস্তা আরো বেহাল হয়ে পড়ে। রাস্তার উপর একহাঁটু জল দাঁড়িয়ে থাকায় পথ চলতি মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েন।রায়গঞ্জের কংগ্রেস বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্তের বাড়ির সামনে এক হাঁটু জল দাঁড়িয়ে যায়। বীরনগরের বাসিন্দা দেবব্রত বসাকের অভিযোগ, নর্দমার আর্বজনা পরিস্কারের জন্য রায়গঞ্জ পৌরসভাকে একাধিকবার জানানো হলেও পৌরসভা নর্দমা পরিস্কারে তেমন উদ্যোগ নেয়নি। ফলে অল্প বৃষ্টিতেই রাস্তায় জল জমে যাওয়ায় সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

রায়গঞ্জ বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্ত আরো আক্রামত্মক।বিধায়কের অভিযোগ, যারা মানুষের রায় নিয়ে ক্ষমতায় আসেনি মানুষের প্রতি তাদের কোনও দায়বদ্ধতাও থাকে না। পৌর এলাকায় নর্দমার হাল বেহাল। পরিস্কার না হবার কারণে অল্প বৃষ্টিতেই শহরে বিভিন্ন এলাকায় জল দাঁড়িয়ে পড়ছে। নর্দমা পরিস্কার করলে সেখানে কাটমানি পাওয়া যায় না।যেখানে কাটমানি আছে সেই কাজ করছে পোরসভা অভিযোগ বিধায়ক মোহিত সেনগুপ্তের।

বিধায়ক মিথ্যাচার করেছেন অভিযোগ পৌরপতি সন্দীপ বিশ্বাসের। তাঁর অভিযোগ রায়গঞ্জের বিধায়ক, পৌরপতি এবং সাংসদ থাকাকালীন কেন তিনি জলনিকাশী ব্যবস্থা করতে পারেননি। আজ নিজের দোষ অন্যের ঘাড়ে চাপিয়ে রাজনীতি করতে চাইছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here