প্রেম প্রত্যাখান, কিশোরীর গলা কেটে খুন

আমাদের ভারত, হাওড়া, ২৭ মে: প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে এক কিশোরীকে গলা কেটে খুন করার অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে থানার গড় ভবানীপুর পাতিয়াগোড়ি গ্রামে। মৃত কিশোরীর নাম তৃষা বাগ (১৭)। মৃত কিশোরী গড় ভবানীপুর রাম প্রসন্ন উচ্চ বিদ্যালয়ের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। অভিযুক্ত যুবকের নাম আনন্দ বাগ ওরফে অজিত। উদয়নারায়ণপুর থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে।

জানাগেছে, আনন্দ বাগ সম্পর্কে তৃষার খুড়তুতো কাকা। বছর খানেক আগে থেকে আনন্দ ও তৃষাকে একাধিকবার প্রেমের প্রস্তাব দেয়। তৃষা সেই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আনন্দ তাকে উত্যক্ত করতে থাকে। বিষয়টি নিয়ে তৃষা তার পরিবারকে জানালে তারা আনন্দকে ডেকে সাবধান করে দেয়। যদিও এর পরেও আনন্দ তাকে উত্ত্যক্ত করতে থাকে। মাস ছয়েক আগে বিষয়টি নিয়ে গ্রামে সালিশি সভা বসলে আনন্দ তার দোষ স্বীকার করে নেয় এবং তৃষাকে উত্তক্ত না করার ব্যাপারে অঙ্গীকার করে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার সকালে তৃষা সাইকেলে চেপে প্রাইভেট টিউশনি সেরে বাড়ি ফেরার পথে আনন্দ তার পথ আটকে দাঁড়ায়। এই নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে আনন্দ আচমকা একটি কাটারি দিয়ে তৃষার গলায় আঘাত করলে তার মাথা শরীর থেকে আলাদা হয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তৃষার মৃত্যু হয়। এরপরেই আনন্দ বাইক নিয়ে গ্রাম ছেড়ে পালায়। পরে পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে।

একটি খুনের মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করে অভিযুক্ত যুবকের খোঁজে তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ
এদিন বিকেলে আনন্দ বাগের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে জয়পুরের কাশমূলী গ্রাম থেকে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here