রহস্যজনক মৃত্যু রাজ্যের নিরাপত্তা উপদেষ্টার সম্পর্কচ্ছিন্না স্ত্রী ও শাশুড়ির

চিন্ময় ভট্টাচার্য, আমাদের ভারত, ৭ জুন: রাজ্যের নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুরজিৎ কর পুরকায়স্থের সম্পর্ক-বিচ্ছিন্না স্ত্রী শর্মিষ্ঠা কর পুরকায়স্থ ও তাঁর মা পাপিয়া দে-র রহস্যজনক মৃত্যু হল। সল্টলেকে বাড়ি থেকে তাঁদের দেহ উদ্ধার হয়েছে। বাড়ির দুটি ঘরে শর্মিষ্ঠা ও পাপিয়া দেবীর দেহ বিছানায় পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। ঘরের দরজা ভিতর থেকে বন্ধ ছিল। প্রাথমিকভাবে দু’জনের দেহে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া না-গেলেও শর্মিষ্ঠাদেবীর মুখে সামান্য গ্যাঁজলা ছিল বলে, বিধাননগর কমিশনারেট সূত্রে খবর। তাঁদের উদ্ধারের পর বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

শর্মিষ্ঠাদেবীর সঙ্গে সুরজিৎবাবুর দীর্ঘদিন কোনও সম্পর্ক ছিল না। দু’জনের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছিল। এই ঘটনায় আত্মহত্যার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ। আবার অন্য কোনও কারণে শর্মিষ্ঠাদেবীর মৃত্যু হয়েছে কি না, তা-ও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। প্রতিবেশীরা পুলিশকে জানিয়েছেন, শর্মিষ্ঠাদেবী ও তাঁর মা কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। তাঁদের সর্দি ও জ্বরের উপসর্গও ছিল। একথা মাথায় রেখে করোনার সম্ভাবনাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

শর্মিষ্ঠাদেবী ২০১৪ সালে বিজেপিতে যোগ দেন। সল্টলেকে দলের মহিলা মোর্চার কাজের সঙ্গেও তিনি যুক্ত ছিলেন। বিধাননগর কমিশনারেট সূত্রে খবর, শনিবার গভীর রাতে শর্মিষ্ঠাদেবীর এক আত্মীয় তাদের কাছে অভিযোগ করেন মা, মেয়ে কেউই ফোন ধরছেন না। এরপর বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ সল্টলেকের বি ই ব্লকের ৭১ নম্বর বাড়িতে গিয়ে দরজা ভেঙ্গে দু’জনকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে। 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here