মল্লারপুরে রহস্যজনক ভাবে খুন মা মেয়ে

আশিস মণ্ডল, বীরভূম, ১৭ মে: রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হল মা ও মেয়ের। ঘটনার পর থেকে পলাতক স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে মল্লারপুর থানার আম্ভা মোড় সংলগ্ন এলাকায়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতরা হলেন ডলি মণ্ডল (৪৬) ও মেয়ে রিমা মণ্ডল (১৭)। ডলি পেশায় এফসিআই গোডাউনের চতুর্থ শ্রেণির কর্মী। মল্লারপুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী রিমা। ডলির স্বামী মিলন মণ্ডল পেশায় গৃহশিক্ষক। এছাড়া তিনি হোমিওপ্যাথি ওষুধের ব্যবসা করতেন। মল্লারপুর হাইস্কুলের কাছে তাদের দোতলা পাকা বাড়ি রয়েছে। রবিবার বেলার দিকে দুধ দিতে গিয়ে বাড়ির নিচে মেয়ের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ বের হতে দেখে এলাকার মানুষ পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

ডলি দেবীর মৃতদেহ দোতলার ঘরের মেঝেতে শায়িত ছিল। মেয়ের মৃতদেহ বাড়ির নিচে বাথরুমের কাছে পড়ে ছিল। দুটি মৃতদেহ কাপড় দিয়ে ঢাকা ছিল। ফলে এলাকার মানুষের ধারণা ঠাণ্ডা মাথায় পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে।

এলাকার বাসিন্দা পরিমল মণ্ডল বলেন, “পলাতক মিলন মণ্ডলের সঙ্গে এলাকার বাসিন্দা নিশীথ মণ্ডলের বন্ধুত্ব ছিল। তিনিই এদিন বেলার দিকে বন্ধুকে ডাকতে গিয়ে দেখেন দরজা খোলা। উপরে উঠে দেখেন বন্ধুর স্ত্রীর মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। এরপর খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। পুলিশ এসে বাড়ির নিচে মেয়ের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে”। যদিও ঘটনা নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে পুলিশ। পদে পদে সংবাদ মাধ্যমের কাজে বাধার সৃষ্টি করছে পুলিশ। স্থানীয়দের অভিযোগ, পুলিশের গোপনীয়তা সন্দেহ বাড়িয়ে তুলেছে। এনিয়ে মুখ খুলতে চায়নি পুলিশ আধিকারিকরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here