মণীশ শুক্লা খুনে গ্রেফতার আরও এক দুষ্কৃতি নাসির খান

রাজেন রায়, কলকাতা, ৭ অক্টোবর: মনীশ শুক্ল খুনের গ্রেফতার আরও এক দুষ্কৃতি। রবিবার রাতে ওই বিজেপি নেতাকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেওয়ার পর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি। মঙ্গলবার সকালে এই ঘটনায় মহম্মদ খুররম এবং গুলাব শেখ নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছিল সিআইডি তদন্তকারীরা। মঙ্গলবার গভীর রাতে এই ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হল আর এক দুষ্কৃতি নাসির খানকে।

সূত্রের খবর, এই নাসির খানই ভাড়াটে খুনিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। আবার নাসির খান নিজেও গুলি চালিয়েছিল বলে তদন্তকারীরা মনে করছেন। এই নিয়ে মণীশ হত্যাকাণ্ডে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হল।

নিহত মণীশ শুক্লার বাবা চন্দ্র মণি শুক্লা তাঁর ছেলের খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হিসেবে ব্যারাকপুর পুরসভার পুর প্রশাসক উত্তম দাস ও টিটাগড় পুরসভার পুর প্রশাসক প্রশান্ত চৌধুরীর বিরুদ্ধে টিটাগড় থানায় মঙ্গলবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সিআইডির দাবি, খুনের আগে মণীশের উপর নজর রেখেছিল নাসির খানই। এমনকী ভাড়াটে খুনিদের সঙ্গেও যোগাযোগ করেছিল সে। টাকার হিসেব নিয়েও কথা বলেছিল। পরে নিজের চেষ্টায় গুলাব শেখ নামে ধৃত ওই খুনিকে নিয়ে আসে মহম্মদ খুররম। নাসিরকে জেরা করে একাধিক তথ্য প্রকাশ্যে আসবে বলে মনে করছেন সিআইডির তদন্তকারীরা।

প্রাথমিক তদন্তে সিআইডি আধিকারিকদের অনুমান, মণীশ শুক্লাকে খুনের পিছনে নাসিরের বড়সড় ভূমিকা ছিল। বিজেপির দাবি, যেহেতু এই ঘটনায় তৃণমূল এবং পুলিশের যোগসাজশের অভিযোগ তারা তুলেছিলেন, তাই ছোটোখাটো তৃণমূল নেতাদের গ্রেফতার করিয়ে নিজেদের ভাবমূর্তি স্বচ্ছ করতে চাইছে তৃণমূল। এদের পরে জামিনও করিয়ে নেওয়া যাবে। এই ঘটনার পেছনে আরও বড় রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে। সেই কারণে এই ঘটনার স্বচ্ছ তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। তৃণমূল এই ঘটনাকে ঘুরিয়ে ধামাচাপা দিতে চাইছে বলে দাবি বিজেপির।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here