কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে কুলতলিতে গ্রেফতার প্রতিবেশী যুবক

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ১০ অক্টোবর: বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগ নিয়ে এক কিশোরীকে জোর করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলতলি থানার মেরিগঞ্জ ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের নয়াপাড়া এলাকায়। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ঐ কিশোরীকে উদ্ধার করে স্থানীয় জামতলা ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সামসুল ঘরামীকে গ্রেফতার করেছে কুলতলি থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ি ফাঁকা থাকার সুযোগ নিয়ে অভিযুক্ত সামসুল ঐ কিশোরীর বাড়িতে ঢোকে। জোর করে তাঁকে ধর্ষণ করে। এ বিষয়ে কাউকে কিছু বললে প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকিও দেয়। রাতে পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে ফিরলে দেখেন ১৪ বছরের ওই কিশোরী ভীষণ অসুস্থ। তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে সমস্ত ঘটনা খুলে বলে। তড়িঘড়ি পরিবারের সদস্যরা তাঁকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। এরপর শনিবার সকালে এ বিষয়ে কুলতলি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ঐ কিশোরীর পরিবারের সদস্যরা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত যুবক সামসুল ঘরামীকে গ্রেফতার করেছে কুলতলি থানার পুলিশ। ধৃতকে রবিবার বারুইপুর মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here