ফুটবল দিয়ে জানালার কাঁচ ভাঙ্গাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী পরিবারকে মারধর, আহত প্রাক্তন সেনা কর্মী সহ ৩

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ১ জুলাই: বাড়ির পাশে দুই কাঠা জমি। এলাকায় সেই ভাবে মাঠ না থাকায় সেখানেই ফুটবল খেলা করে এলাকার যুবকরা। বারবার ফুটবল জানলায় লেগে জানালার কাঁচ ভেঙ্গে যায়। যুবকদের সাবধানে খেলতে বলায় রাতের অন্ধকারে ওই বাড়িতে ঢুকে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠল প্রতিবেশী যুবকদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগণার গোবরডাঙ্গা থানার হাইদাতপুর এলাকায়। আহতদের নাম সিলু শোভা, বীরবল শোভা তাঁদের ছেলে। আহতদের হাবড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অভিযোগ, বাড়ির পেছনে একটি ছোট্ট জমিতে এলাকার যুবকরা খেলা ধূলা করে। প্রতিদিনের মতো এদিনও ওই যুবকরা ফুটবল খেলতে আসে। ফুটবল খেলার ধুমে কখনও প্রতিবেশীদের ঘরের জানালার কাঁচ ভাঙ্গছে, কখনও টালির চালা। এদিন সিলু শোভা ওই যুবকদের বলেন, সাবধানে খেলাধুলা কর। বলের ঘায়ে জানলার কাঁচ ভেঙ্গে পড়েছে। এই নিয়ে ওই যুবকদের সঙ্গে বচসাও হয়। সেই ঘটনা সেখানেই মিটে যায়। কিন্তু ওই রাতে এলাকার বেশ কয়েকজন যুবক মদ্যপ অবস্থায় প্রাক্তন সেনাকর্মী বীরবল শোভার বাড়িতে চড়াও হয়। প্রতিবাদ করতে গেলে সেনাকর্মীর স্ত্রী সহ তাঁর ছেলেকেও বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

সেনাকর্মীর স্ত্রী সিলু শোভা বলেন, রাতের অন্ধকারে ওই জমিতে মদের আসর বসায় এলাকার দুষ্কৃতীরা। এছাড়া বাইরে থেকে মেয়েও নিয়ে আসে। পুলিশ পক্ষপাতিত্ব করে অভিযুক্তদের ছেড়ে দিয়েছে। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি করেন সেনাকর্মীর পরিবার।

এই ঘটনার গোবরডাঙ্গা থানার ওসি বলেন, এই ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাদের বারাসত আদালতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এলাকার বিজেপি মণ্ডল সভাপতি আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, অভিযুক্তরা তৃণমূল করে। তাই শাসক দলের চাপে পড়ে পুলিশ পক্ষপাতিত্ব করে ছেড়ে দিয়েছে। ওই পরিবার সুবিচার না পেলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামব।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here