ল্যাব বেড়েও কমছে টেস্ট! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন আক্রান্ত আরও ৩৩৪৮, মৃত ৬১, সুস্থ ৩০০৯

রাজেন রায়, কলকাতা, ৫ অক্টোবর: আগে প্রায় দু’দিন অন্তর ১ শতাংশ করে সুস্থতার হার বাড়ছিল রাজ্যে। কিন্তু নতুন করে করোনা সংক্রমণের উর্ধ্বগতিতে ১২ দিনেও ১ শতাংশ পেরোচ্ছে না সুস্থতা। শুধু তাই নয় রাজ্যে ল্যাবের সংখ্যা বেড়ে ৮২ থেকে ৮৭ করা হলেও করোনা টেস্টের সংখ্যা দৈনিক ৪৭ হাজার থেকে কমিয়ে আনা হয়েছে ৪০ হাজারে।

ফের রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন সংক্রমণের হদিশ ৩৩৪৮ জনের, মৃত্যু ৬১ জনের এবং সুস্থ হয়েছেন ৩০০৯ জন। সুস্থতার হার যৎসামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৭.৯৫ শতাংশে। সোমবারের বুলেটিন অনুযায়ী, ২৪ ঘন্টায় ৩৩৪৮ জন নতুন আক্রান্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৭৩৬৭৯ জন। এদিন আরও ৬১ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৫২৫৫ জনের। ২৪ ঘন্টায় আরও ৩০০৯ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ২৪০৭০৭ জন।

এদিনও অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনাতে ৭৫৮ জন, কলকাতায় ৫১৮ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৯৮ জন, হাওড়ায় ১৪৫ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ১২৯ জন, হুগলিতে ১২১ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১১১ জন, নদিয়ায় ১০৭ জন, পুরুলিয়া ৯১ জন আর বাঁকুড়ায় ৯০ জন সুস্থ হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২৭৭১৭ জন। এ দিন হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে ২৭৮ জন।
বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৮৭টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্ট করা হল ৩৪৩৮১২৮ জনের। যার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৪০১৪০ জনের। উল্লেখ্য, ল্যাবের সংখ্যা বাড়লেও রাজ্যে কমছে করোনা টেস্টের সংখ্যা। রাজ্যের ৯২টি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল, ৩৭টি সরকারি এবং ৫৫টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১২৭১৫টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ১২৪৩ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৭৯০টি। তার মধ্যে মাত্র ৩৭.৫১ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ২৪২৫ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৭৭৬১ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৮০২৮১ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৬৫১৮২৭ জনকে। রাজ্যের ২০০টি সেফ হোমে ১১৫০৭টি বেড রয়েছে এবং তাতে ১৩৬৩ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের মৃত্যু হিসেবে বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, এদিনও রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬১ জনের। এ দিন উত্তর ২৪ পরগনায় ৯ জন আর কলকাতায় ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া হুগলি ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৭ জন করে, বাঁকুড়া ও পশ্চিম মেদিনীপুরে ৪ জন করে, পূর্ব মেদিনীপুরে ৩ জন, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার ও পশ্চিম বর্ধমানে ২ জন করে এবং নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, হাওড়া, পুরুলিয়া ও পূর্ব বর্ধমানে ১ জন করে মোট আরও ৩৬ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতায় ৬৬৯ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৭৪২ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৯২ জন, হাওড়ায় ১৮৮ জন, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৪২ জন, হুগলিতে ১৩৮ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১৩১ জন, নদিয়ায় ১২৬ জন, মালদায় ১১৩ জন, মুর্শিদাবাদ ১০০ জন এবং কোচবিহারে ৯৭ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের সব জেলাতেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here