মেদিনীপুরে সারা বাংলা আন্তঃ বিদ্যালয় কুইজ ফেস্টে চ্যাম্পিয়ান হাওড়ার নিউ আন্দুল হায়ার ক্লাস স্কুল

পার্থ খাঁড়া, আমাদের ভারত, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৩ সেপ্টেম্বর: মেদিনীপুর কুইজ কেন্দ্র সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর স্মৃতি মন্দিরে প্রয়াত অণিমা গাঙ্গুলির নামাঙ্কিত মঞ্চে অনুষ্ঠিত হল সারা বাংলা আন্তঃ বিদ্যালয় কুইজ ফেস্ট ২০২২। এটি ছিল কুইজ কেন্দ্রে আয়োজিত স্কুল কুইজের তৃতীয় সিজন। এই কুইজে বাংলার বিভিন্ন জেলায় ৯৪ টি বিদ্যালয়ের মোট ১৩৪ টি টিমে ২৬৮ জন প্রতিযোগী অংশ নেয়।প্রদীপ জ্বালিয়ে ও চারাগাছে জল ঢেলে এদিনের কুইজের সূচনা হয়। কুইজকে ঘিরে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো।

প্রাথমিক বাছাই পর্ব থেকে ৩০ টি টিম সেমিফাইনালে উত্তীর্ণ হয়। সেখান থেকে ফাইনালে পৌঁছায় মোট আটটি টিম। এদিনের কুইজে চ্যাম্পিয়ান হয় হাওড়ার নিউ আন্দুল হায়ার ক্লাস স্কুল, দ্বিতীয় হয় পূর্ব মেদিনীপুরের তমলুক হ্যামিলটন হাইস্কুল, তৃতীয় হয় উত্তর চব্বিশ পরগনার বারাসাত পি সি এস স্কুল। সফল প্রতিযোগীদের হাতে সুদৃশ্য ট্রফি সহ নানা উপহার তুলে দেওয়া হয়। সেমিফাইনালে ওঠা ৩০ টি টিমকেই পুরস্কৃত করা হয়।

এদিনের অনুষ্ঠানে প্রতিযোগীদের উৎসাহিত করতে উপস্থিত ছিলেন মেদিনীপুর কলেজের প্রাক্তন অধ্যাপক বিশ্বনাথ দে, লেখিকা ও সমাজকর্মী রোশেনারা খান, বিদ্যাসাগর শিক্ষক শিক্ষণ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যাপক বিশ্বজিৎ সেন, ভগবতী শিশু শিক্ষায়তনের প্রধান শিক্ষিকা গোপা ব্যানার্জি, উদ্যোগপতি আনন্দগোপাল মাইতি, উদ্যোগপতি চন্দন বসু, সমাজসেবী অনুপ মন্ডল, সমাজসেবী আশীষ মন্ডল, সঙ্গীত শিল্পী শিক্ষিকা সুমিতা ভট্টাচার্য,পাঞ্জাবের চন্ডীগড়ের চিৎকারা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট আউটরিচ দপ্তরের ডাইরেক্টর অম্লান পুরকায়স্থ, অ্যাসিটেন্ট ম্যানেজার দীপঙ্কর সামন্ত প্রমুখ বিশিষ্ট জনেরা।

কুইজ কেন্দ্রের পক্ষে সবাইকে স্বাগত জানান কুইজ কেন্দ্রের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক সুজন বেরা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং পুরস্কার বিতরণী সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রিংকু চক্রবর্তী। ধীমান চক্রবর্তী ও বিশ্বজিৎ কর্মকারের টেকনিক্যাল সহযোগিতায় কুইজ মাস্টার অরিন্দম দাস ও শান্তনু ঘোষের নেতৃত্বে কুইজ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে দুরন্ত অডিও ভিসুয়াল কুইজ উপস্থাপিত করা হয়।

কুইজ কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বাখরাবাদ হাইস্কুলের সাহসী ছাত্র অজয় ঠক্কর এবং মেদিনীপুরের কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র আবৃত্তি শিল্পী অনুভব পালকে বিশেষ পুরস্কারে পুরস্কৃত করা হয়। পাশাপাশি এবছর “শিক্ষারত্ন সম্মানে ভূষিতা কুইজ কেন্দ্রের সদস্যা শিক্ষিকা আল্পনা দেবনাথ বসুকে বিশেষ সম্মাননা জ্ঞাপন করা হয়। অনুষ্ঠানের মাঝে মাঝে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা আবৃত্তি ও গান পরিবেশন করে। অনুষ্ঠানের শেষ লগ্নে এদিনের দুই অতিথি সুমিতা ভট্টাচার্য ও গোপা ব্যানার্জির গান উপস্থিত সকলের মন ছুঁয়ে যায়‌।

এদিনের উদ্বোধনী পর্ব ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন স্নেহাশিস চৌধুরী। এছাড়াও এদিনের অনুষ্ঠানে কুইজ কেন্দ্রের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন গৌতম বসু, সুভাষ জানা,অলক গাঁতাইত, প্রসূন কুমার পড়িয়া, অমিতেশ চৌধুরী, সুদীপ কুমার খাঁড়া, গৌতম নন্দ, অপূর্ব কুমার জানা, চন্দন দাস, সূর্যশিখা ঘোষ, সুতপা বসু, আলোক মাইতি, পায়েল পাল, শবরী বসু, অন্তরা বসু জানা, স্বর্ণলতা বেরা, মৃন্ময়ী খাঁড়া, সৌনক সাউ, নরসিংহ দাস, শুভরাজ আলি খান, শুভ্রাংশু শেখর সামন্ত, চঞ্চল হাজরা, সত্যজিৎ ঘোড়াই, অরবিন্দ মাইতি, মৃণাল চক্রবর্তী, ভার্গব সরকার, প্রশান্ত কলা সহ অন্যান্য উপস্থিত ছিলেন। কুইজ সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হওয়ায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান কুইজ কেন্দ্রের সভাপতি রিংকু চক্রবর্তী।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here