বিয়ের মাধ্যমে বা জোর করে ধর্মান্তরকরণের বিরুদ্ধে আইন আনতে চলেছে হরিয়ানা সরকার

আমাদের ভারত, ১৭ জুন : জোর করে কিংবা বিয়ে দিয়ে ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে কঠোর আইন আনতে চলেছে হরিয়ানা সরকার। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার জানিয়েছেন জোর করে প্রলোভন দেখিয়ে কিংবা বিয়ে দিয়ে নতুন ধর্ম গ্রহণ করার বিরুদ্ধে তাঁর সরকার কড়া আইন আনতে চলেছে। একই সঙ্গে তিনি আরো জানান গো-রক্ষার আইন কেউ তার রাজ্যে আরোও কঠোর করা হবে।

নূহতে সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রীর জানান মুষ্টিমেয় কিছু মানুষের গো হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। একইসঙ্গে নূহতে ধর্মান্তকরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।মনোহর লাল খাট্টার বলেন, একজন মানুষের সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে যে কোন ধর্ম গ্রহণ করার তবে তাকে জোর করে কিংবা প্রলোভন দেখিয়ে কিংবা অন্য কোনো উপায়ে ধর্মান্তকরণের ঘটনা তার রাজ্যে আর বরদাস্ত করা হবে না। খট্টর জানান ধর্মের স্বাধীনতা আইন আনা হবে যেখানে ভুল উপস্থাপনা, বলপ্রয়োগ, অযৌক্তিক প্রভাব জবরদস্তি প্ররোচনা বিবাহ বা অন্য কোন প্রতারণামূলক উপায় ধর্মান্তকরণের বিরুদ্ধে বিধান থাকবে। জোর করে ধর্মান্তকরণে বিরুদ্ধে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

যেসব অঞ্চলে সংখ্যালঘুরা রয়েছে সেখানে হিন্দুদের ধর্মীয় সম্পদ দেখাশোনা করার জন্য একটি বোর্ড গঠন করা হবে। এলাকার মানুষের চাহিদা অনুযায়ী এই কাজ করা হবে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। কিন্তু গো-হত্যার মতো ঘটনা ঘটলেই তখনই দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে শত্রুতা বিভেদ সৃষ্টি হয়। তাই রাজ্য সরকার এই জাতীয় ঘটনাগুলি আটকাতে ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে গো হত্যা মামলার আসামির বিরুদ্ধে বিচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গো হত্যার ঘটনা আটকাতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ও তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফার্স্ট ট্র্যাক কোর্টে বিচার অনুষ্ঠিত হবে যদিও হরিয়ানায় গো রক্ষার জন্য কড়া আইন রয়েছে ইতিমধ্যেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here