চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর হামলায় ৭ বছর জেল ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা, অর্ডিন্যান্স কেন্দ্রের

আমাদের ভারত, ২২ এপ্রিল : চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী দের বারবার হামলার ঘটনায় এবার বেশ কড়া হলো সরকার। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে অর্ডিন্যান্স আনলো কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের পরই কার্যকর হবে এই অর্ডিন্যান্স।

চিকিৎসকদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি ২৪ ঘন্টার মধ্যে পূরণ করল কেন্দ্র। অমিত শাহ চিকিৎসকদের কথা দিয়েছিলেন তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কেন্দ্র কঠোর আইন আনবে। সরকার সবসময় তাদের পাশে আছে চিকিৎসকদের দেওয়া প্রতিশ্রুতিতে পূরণে বিন্দুমাত্র সময় নষ্ট না করে নতুন কঠোর আইন আনার কথা ঘোষণা করল কেন্দ্র। নতুন আইনে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য কর্মীদের উপর হামলা হলে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা হবে। দোষী সাব্যস্ত হলে ৭ বছর পর্যন্ত জেল ও ২ লক্ষ টাকা জরিমানা হতে পারে।

এদিন ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের চিকিৎসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে কথা বলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ২৩ এপ্রিল কালোদিন পালন করার পূর্বপরিকল্পিত প্রতিবাদ সরে আসার আবেদন করে আশ্বাস দেন সবরকম সাহায্যের। আর এরপরই মন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি পেয়ে ২৩ এপ্রিল কালদিন পালন করার প্রতিবাদ প্রত্যাহার করেন আই এম এর চিকিৎসকরা। এই কনফারেন্সে চিকিৎসকরা কেন্দ্রীয় সরকারকে নতুন আইন আনার আর্জি জানিয়েছিলেন। তাদের আবেদন ছিল কেন্দ্রীয় সরকার ডাক্তার এবং চিকিৎসা কর্মীদের জন্য কড়া আইনা আনা হোক। যাতে তাদের উপর কোন রকম হেনস্থার ঘটনা না ঘটে।

গত কয়েক দিন দেশের বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর একাধিক হামলার ঘটনা ঘটেছে। তাই এবার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চিকিৎসকদের আবেদনের ভিত্তিতেই এই ধরনের হামলা হলে তা জামিন অযোগ্য অপরাধবলে গণ্য করা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। পাশাপাশি অপরাধে ৬মাস থেকে ৭ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে বলেও ঘোষণা করা হয়েছে। জরিমানা করা হবে ৫০ হাজার টাকা থেকে ২লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

করোনা ভাইরাস এর মোকাবিলায় দিনরাত এক করে পরিশ্রম করে যাচ্ছে দেশের চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মীরাআর তারই মধ্যে দেশের বিভিন্ন জায়গায় করোনা পরীক্ষা করতে গিয়ে স্বাস্থ্য কর্মী ও চিকিৎসকদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। কোথাও কোথাও স্বাস্থ্য কর্মীদের নিজেদের বাসস্থানে ঢুকতে পর্যন্ত বাধা দেওয়া হয়েছে। ১৮৯৭ সালের মহামারী আইনে সংশোধন করে আনা হলো আইন হল। এই আইন ভাঙলে এবার থেকে জামিন অযোগ্য ধারায় ৩০ দিনের মধ্যে তদন্ত করে মামলার নিষ্পত্তি হবে। আইন ভঙ্গ কারিকে তিন মাস থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল, ৫০ হাজার থেকে দু লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর। স্বাস্থ্য কর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় আঘাত গুরুতর হলে অভিযুক্ত ছয় মাস থেকে ৭ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। জরিমানা হবে ১ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here