দিদিকে বলো অনুষ্ঠানে সুরাহা ক্যান্সার রোগীর

দিদিকে বলো অনুষ্ঠানে সুরাহা ক্যান্সার রোগীর

আমাদের ভারত, হাওড়া, ২১ আগস্ট: চার মাস আগে মুখের ক্যান্সার ধরা পড়ার পর চিকিৎসার খরচ যোগাতে না পেরে নিজের বেঁচে থাকা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন চিহ্নের মুখে পড়েছিলেন উলুবেড়িয়া বানীবনের জয়ন্ত চৌধুরী (৬৪)। বুধবার বিকেলে দিদিকে বলো অনুষ্ঠানে বিনা পয়সায় হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিয়ে জয়ন্তবাবুকে অনেকটাই স্বস্তি দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ডাঃ নির্মল মাজি।

জানাগেছে, একটি বৃদ্ধাশ্রমের দেখাশোনা করতেন জয়ন্ত চৌধুরীর। মাস চারেক আগেক্যান্সার ধরা পড়ে। শরীরে মারণ রোগ বাসা বাঁধার বিষয়টি জানার পরেই তাক্বর কাজের জায়গায় সমস্যা হওয়ায় জয়ন্তবাবু কাজ ছেড়ে দেন। নিজের জমানো টাকা দিয়ে আন্দুলের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু করেন। জয়ন্ত চৌধুরীর বক্তব্য, চিকিৎসা শুরু করার কয়েকদিনের মধ্যেই তাঁর সঞ্চয়ের ভান্ডারে টান পড়ায় চিকিৎসা বন্ধ করে দিতে হয়। তিনি বলেন, প্রথমে নিজের চিকিৎসার খরচ যোগাড় করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় ছোটাছুটি করেও সেভাবে টাকা যোগাড় না করতে পেরে হতাশায় বিনা চিকিৎসায় বাড়িতে বসেছিলেন।
জয়ন্ত চৌধুরীর বক্তব্য, দিদিকে বল অনুষ্ঠান সম্পর্কে জানতে পারার পর একাধিকবার নির্দিষ্ট ফোন নং এ যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও বিফল হই। যদিও মঙ্গলবার উলুবেড়িয়ার ধর্মতলায় দিদিকে বলো অনুষ্ঠানের কথা জানতে পারি। আর তারপরেই নিজের চিকিৎসার খরচের সুরাহার জন্য অনুষ্ঠানস্থলে উপস্থিত হই। জয়ন্ত চৌধুরী জানান, আজ বিকেলে দিদিকে বলো অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার পর মন্ত্রী ডাঃ নির্মল মাজি তাঁকে ভালো করে পরীক্ষা করার পাশাপাশি চিকিৎসার সমস্ত কাগজপত্র দেখার পর আমাকে বিনা পয়সায় কলকাতার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করে দেন।
তিনি বলেন, এলাকার বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী ডাঃ নির্মল মাজি যেভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিলেন তাতে নতুন করে বাঁচার আলো দেখতে পাচ্ছি।

অন্যদিকে জয়ন্ত চৌধুরীকে কলকাতার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা প্রসঙ্গে মন্ত্রী ডাঃ নির্মল মাজি জানান, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা আছে। অনেকক্ষেত্রে রুগীরা সেই বিষয়ে জানতে পারেন না, এমনকি অনেকে ঠিকভাবে যোগাযোগ করে উঠতে পারে না। এক্ষেত্রে জয়ন্তবাবু আমার কাছে এসেছিলেন আমি তাঁকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেওয়ার পাশাপাশি বিনামূল্যে তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দিই। এদিন ডাঃ নির্মল মাজি জানান, দিদিকে বল অনুষ্ঠানে এইরকম অনেকেই তাদের সমস্যা জানানোর পর আমরা সেইসব সমস্যার সমাধান করে দিচ্ছি।

এদিনের এই অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উলুবেড়িয়া ২ নং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শেখ ইলিয়াস, হাওড়া জেলা পরিষদের সদস্য মদন মোহন মন্ডল সহ একাধিক তৃনমূল নেতৃত্ব।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × four =