প্রাচীন পরম্পরায় ছেদ টানলো কোভিড ১৯, শিকার উৎসব হচ্ছে না অযোধ্যা পাহাড়ে

সাথী প্রামানিক, আমাদের ভারত, পুরুলিয়া, ৬ মে: কোভিড ১৯ এর কারণে এবার অযোধ্যা পাহাড়ের শিকার উৎসব হচ্ছে না। চিরাচরিত রীতিতে ছেদ পড়েছে পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ের শিকার উৎসবে।  প্রথমবার এই প্রাচীন উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। বিশ্ব মহামারির কারণে ঐতিহ্যের ধারা থমকে গেল। লকডাউনে যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ, জমায়েত নিষিদ্ধ রয়েছে।

ফি বছর বুদ্ধ পূর্ণিমায় অযোধ্যা পাহাড়ে পালিত হচ্ছে না আদিবাসী সাঁওতালদের শিকার উতসব।বুদ্ধ পূর্ণিমার আগের দিন থেকেই এই রাজ্যের বিভিন্ন জেলা ছাড়াও ঝাড়খণ্ড ও ওড়িশা থেকে সাঁওতাল শিকারিরা দলে দলে চলে আসতেন অযোধ্যায়। তবে এবার সব স্থগিত রয়েছে। 

স্থানীয় আদিবাসী নেতা তথা বন সুরক্ষা কমিটির পদাধিকারিক অখিল সিং সর্দার বলেন, ‘আমরা শিকার উৎসবে আনন্দ ও মনোরঞ্জনের জন্য বন্য প্রাণীকে হত্যা করার বিপক্ষে, এটা প্রচার করে এসেছি। কিন্তু উৎসব পালনে কোথাও খামতি ছিল না। বহু প্রতীক্ষিত সেই উৎসব এবার হচ্ছে না। কয়েকদিন ধরে অবশ্য বাঘমুন্ডি থানার পুলিশ অযোধ্যা পাহাড় জুড়ে মাইকে সচেতনতার প্রচার চালায়।

কথিত আছে অয্যোধ্যার শিকার উৎসবে যোগ না দিলে আদিবাসী সাঁওতাল সম্প্রদায়ের ছেলেরা পুরুষ হয় না। পুর্নিমার রাত থেকে পরের দিনের অনেকটা সময় অয্যোধ্যার অরণ্যে অরণ্যে ঘুরে থাকেন আদিবাসী সাঁওতালদের সব বয়সের পুরুষ। সারারাত অরণ্যে বিচরণ করার পর তারা জড়ো হন পাহাড়ের এক অংশে থাকা গড়থানে। সেখানে পুজো ও নৃত্যের পর সন্ধ্যে থেকে নিজেদের বাড়ি মুখো হন তারা। শিকার উৎসবে মহিলারা যোগদান করেন না। তরুণ থেকে প্রৌঢ় নানা বয়সের পুরুষদের এবারও দেখা  যাবে না পাহাড়ে। 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here