রাত পোহালেই পয়লা বৈশাখ, মৃৎশিল্পীরা লক্ষ্মী গণেশের মূর্তি সাজিয়ে বসে থাকলেও কেনার লোক নেই পটুয়া পাড়ায়

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১৩ এপ্রিল: রাত পোহালেই বাংলা নববর্ষ। বাঙালি ব্যবসায়ীদের নতুন খাতার মহরত। সেই সঙ্গে ধন সম্পদের প্রতীক লক্ষ্মী ও গণেশের আরাধনা। মিষ্টি মুখ, নতুন ক্যালেন্ডার, পঞ্জিকা কত কিছুই না জড়িয়ে রয়েছে এই দিনটির সঙ্গে। কিন্তু এবছর করোনার বয়াবহ আক্রমণের জেরে সব কিছুই ওলোট পালোট হয়ে গেছে। করোনাকে রুখতে লকডাউনই একমাত্র পথ, ফলে সবকিছু বন্ধ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘরেই লক্ষ্মী গণেশের আরাধনা করতে বলেছেন।

মিষ্টির দোকানকে ছাড় দেওয়া হলেও দোকান
ফাঁকা। কারণ মিষ্টির বরাত নেই এই দিনটির জন্য। যারা সবচেয়ে বেশি পথ চেয়ে থাকেন এই দিনটির জন্য সেই মৃৎশিল্পীদেরও মুখ ভার। লক্ষ্মী গণেশের প্রচুর মূর্তি ঘরেই পড়ে রয়েছে। গ্রাসাচ্ছদনের চিন্তা তাদের চোখে মুখে। করোনার জেরে হাজার হাজার ব্যবসায়ীর ব্যবসা বন্ধ। হালখাতার জন্য লাল রঙের খেরোর খাতা সুতো বন্দি হয়ে পড়ে রয়েছে গোডাউনে। এখন নিজেদের বাঁচাতে দোকান বন্ধ রাখতেই হবে। তাই নববর্ষের প্রথম দিনে গৃহবন্দি হয়ে থাকতেই হবে সকলকেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here