পুজোয় মেলা চালুর আবেদন, বালুরঘাটে মিছিল করে বিক্ষোভ উত্তরবঙ্গ মেলা হকার্স ইউনিয়নের

পিন্টু কুন্ডু, বালুরঘাট, ১৪ অক্টোবর: করোনার আনলক পর্বে এবার মেলার অনুমতি সহ মাসিক ভাতা প্রদানের দাবিতে আন্দোলনে নামল উত্তরবঙ্গ মেলা হকার্স ইউনিয়ন। বুধবার পাঁচ দফা দাবি-দাওয়া নিয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা শাসকের কাছে একটি স্মারকলিপিও জমা দেন সংগঠনের সদস্যরা।

এদিন দুপুরে বালুরঘাট শহরজুড়ে একটি মিছিল করে জেলা শাসকের দপ্তরে পৌঁছায় সংগঠনের সদস্যরা। প্রবেশ পথে পুলিশ তাদের আটকে দিলেও এক প্রতিনিধি দল জেলা শাসককে স্মারকলিপি তুলে দেন। সংগঠনের দাবি, এমনিতেই তারা ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতর ব্যবসায়ী। ভিন রাজ্যে না গিয়ে জেলার বিভিন্ন মেলা গুলিতে দোকান দিয়ে বিক্রিবাট্টা করে কোনও রকমে সংসার চলে। কিন্তু এই লকডাউনের ফলে মেলা বন্ধ থাকায় তারা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন। এমন পরিস্থিতিতে পরিবার নিয়ে কিভাবে দিন চলবে তা নিয়ে চরম সমস্যায় তাদের প্রতিটি সদস্য। অন্যদিকে অনেক ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী যারা বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিয়ে এই ব্যবসায় নেমেছিলেন সেই সব আর্থিক ঋণ মেটানোর জন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলি প্রতিদিন চাপ দিতে থাকায় আরও বেকায়দার মধ্যে পড়েছেন সংগঠনের সদদ্যরা। এমত অবস্থায় একমাত্র সরকারই পারে তাদের এই চরম সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে। আনলক পর্বে যখন ধাপে ধাপে বাজারঘাট, শপিংমল, সিনেমা হল, পার্লার সমস্ত কিছু খুলে গিয়েছে তখন একমাত্র মেলা কেন বন্ধ রাখা হয়েছে সে প্রশ্নও তুলেছেন সংগঠনের সদস্যরা। যেখানে এই মেলাকে নির্ভর করেই কয়েক হাজার মানুষের জীবন জীবিকা চলছে। তাই তাদের দাবি, অবিলম্বে প্রশাসন এই উৎসবের মরসুমে মেলা করার অনুমতি দিক তাদের। পাশাপাশি দীর্ঘ আটমাস ব্যবসার ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রত্যেককে মাসে সাত হাজার টাকা করে ভাতা প্রদান করবার দাবিও জানানো হয় সংগঠনের তরফে।

ইউনিউন সমিতির সভাপতি গোবিন্দ সাহা জানান, মার্চ মাসের লকডাউন শুরুর থেকে দীর্ঘ এই আট মাস সারা রাজ্যের পাশাপাশি তাদের জেলায় সমস্ত মেলা বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে চরম সমস্যায় পড়েছেন তারা। অবিলম্বে তাদের মেলা করার অনুমতি দেওয়া সহ মাসিক ভাতা প্রদানের দাবিতে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন জেলাশাসককে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here