উত্তর দিনাজপুরে ৩০ জনকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠাল জেলা প্রশাসন

স্বরূপ দত্ত, উত্তর দিনাজপুর, ১৭ মে: উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ, কালিয়াগঞ্জ ও করণদিঘির ব্লকের তিনজন করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে আসা প্রায় ৩০ জনকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখল জেলা প্রশাসন। বরিবার সকালে তাঁদের চিহ্নিত করে কোয়ারান্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়। জেলা পুলিশ প্রশাসন ওই তিন কনটেনমেন্ট জোনে কড়া নজরদারি শুরু করেছে।

প্রশাসনসূত্রে জানা গিয়েছে, করণদিঘীর দোমোহনা গ্রাম পঞ্চায়েতের ক্ষত্রীয় গ্রামের করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি চলতি মাসের ৯ তারিখে লক্ষ্ণৌ থেকে বাড়িতে এসে পৌছন।কালিয়াগঞ্জের থানাপাড়া এলাকার আক্রান্ত ব্যক্তি একই দিনে কলকাতার খিদিরপুর এলাকা থেকে ফেরেন৷ রায়গঞ্জের শেরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ডোডরা গ্রামের বাসিন্দা একই দিনে রাজস্থান থেকে ফিরেছিলেন। এরপর লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। সেই রিপোর্ট আসতেই দেখা গিয়েছে তাঁরা করোনা পজিটিভ।

রায়গঞ্জের শেরপুর গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার ডোডরা গ্রামের করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে ১৪ জন এসেছিলেন৷ রবিবার সকালে তাঁদের প্রত্যেকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। করণদিঘির দোমোহনা এলাকার করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন ১১ জন ও কালিয়াগঞ্জের করোনা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা ৫ জনকে চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠিয়েছে জেলা প্রশাসন। তিন ব্যক্তিই ভিনরাজ্যে শ্রমিকের কাজ করতেন বলে জানা গেছে। মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এই তিনজনের সোয়ার স্যাম্পল টেস্টের জন্য পাঠানো হলে শনিবার গভীর রাতে ওই তিন ব্যক্তির রিপোর্ট পজিটিভ আসে৷ এরপরেই নতুন করে তৎপরতা শুরু হয় জেলা প্রশাসনিক মহলে। এদিকে তিন কন্টেনমেন্ট জোনেই শুরু হয়েছে কড়া পুলিশি নজরদারি। ওই এলাকায় ঢোকা ও বেরোনোর ক্ষেত্রে জারি করা হয়েছে কড়া নিষেধাজ্ঞা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here