রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০, ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ বাড়ল আরও ২৪, কেন্দ্রীয় ফারাক কমে ২৬

সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা, ১৬ এপ্রিল: রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা ২০০ পেরোল। বৃহস্পতিবার নবান্নে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘন্টায় আরও ২৪ জন আক্রান্ত হওয়ায় রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০৫ জন। যদিও চিকিৎসাধীন আক্রান্ত ১৪৪ জন, কারণ ছেড়ে দেওয়া হয়েছে আরও ৯ জনকে। সুস্থ হয়ে এই নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ৫১ জন। একই সঙ্গে রাজ্যে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে আরও তিন জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। এই নিয়ে রাজ্যে করোনা সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১০।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা। যদিও কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যে মোট আক্রান্ত ২৩১ জন। আর সুস্থ ৫১ জন এবং মৃত ১০ জনের হিসেব বাদ দিলে বঙ্গে করোনা চিকিৎসাধীন ১৭০ জন, এমনটাই দাবি স্বাস্থ্যমন্ত্রকের। ফলে কেন্দ্র ও রাজ্যের হিসেবে ফারাক রয়েছে ২৬ জনের।

এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট টেস্টের সংখ্যা ৩৮১১ বলেও জানান তিনি। পাশাপাশি তিনি বলেন, “যেখান থেকে বেশি কেস আসছে সেটা নিয়ে আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। সেখান থেকে যাতে করোনা ভাইরাস অন্য জায়গায় ছড়িয়ে না যায়, তার জন্যও প্রয়োজনীয় সবরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।” মুখ্যসচিব আরও জানান, এই মুহূর্তে রাজ্যে ৫৮২টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার আছে। সরকারি কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৩৯১৫ জন। ৩৬ হাজার ৯৮৩ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

বিরোধী শিবিরের বিশেষ করে বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ পশ্চিমবঙ্গে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ও সঙ্ক্রমণে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ঘটনা গোপন করা হচ্ছে। যা রাজ্যকে আরও বিপজ্জনক পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দিচ্ছে। এদিন মুখ্যসচিব বৈঠকে বলেন, “করোনা ভাইরাস একটি জাতীয় বিপর্যয়। কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকার যৌথভাবে কাজ করছে। যা কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন আছে সেটা আমরা সবার মতামত নিয়ে কাজ করছি। এর জন্য আমাদের অ্যাডভাইসরি বোর্ড রয়েছে।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here