তিন দিন অনাহারে থাকা এক ছাত্রের বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিলেন কৃষ্ণগঞ্জ থানার ওসি

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ১৯ এপ্রিল:
আবারও মানবিক কৃষ্ণগঞ্জ থানার ওসি রাজ শেখর পাল। নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের বানপুরের বাগানপাড়া সীমান্তবর্তী গ্রাম। এই গ্রামে বাস করেন জাহিদ হোসেন মন্ডল (১৮)। বর্তমানে বানপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র। বাবা বছর খানেক আগে মারা যান। সংসার চালাতে মা কাজের সন্ধানে পাড়ি দেন কলকাতায়। মা সাবিনা বেওয়া মন্ডল পরিচারিকার কাজ করেন। লকডাউনের কারণে তিনি বাড়িতে আসতে পারেননি।

বর্তমানে জাহিদ একাই থাকে বাড়িতে। প্রতিমাসে মুদির দোকান থেকে বাজার করে আনে। কিন্তু মুদির দোকানে দুমাসের টাকা বাকি পড়ে যাওয়ায় দোকানদার আর জিনিস দেয়নি। ফলে তিন দিন উনুন ধরাতে পারেনি জাহিদ। প্রতিবেশীরা কেউ এই দুর্দিনে সাহায্য করতে এগিয়েও আসেনি। ফলে তিন দিন অনাহারেই কাটাতে হয় তাকে। এই খবর শোনা মাএই কৃষ্ণগঞ্জের ওসি জাহিদের বাড়িতে চাল, ডাল, আলু, বিস্কুট, সরষের তেল ডিম ও অন্যান্য মশলা সহ এক মাসের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন। খাদ্য সামগ্রী পেয়ে জাহিদ খুব খুশি।

জাহিদ বলেন, এই দুর্দিনে বড়বাবু আমার বাবার মতো পাশে দাঁড়ালেন। আমি এই কদিনে বুঝেছি অনাহারে থাকা কত কষ্টের। ওসির এই দানের কথা কোনও দিন ভুলবো না।

ওসি রাজশেখর পাল বলেন, এটা তেমন কিছু নয়, শুধু মানুষ হয়ে মানুষের জন্য কাজ করা।

ওসির এই কাজের ভূয়সী প্রশংসা করলেন বানপুর মাটিয়ারী হাই স্কুলের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক তাপস কুমার মিত্র। তিনি বলেন, এই ওসি শুধু মানবিক নয় তিনি একজন দক্ষ প্রশাসকও বটে। বর্তমানে এই ওসির কাছ থেকে আমরাও অনেক কিছু শিখতে পারছি। রাজ শেখর বাবুকে আমরা কৃষ্ণগঞ্জের ওসি হিসাবে পেয়ে খুশি ও গর্বিত।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here