বর্ধমান শহরে করোনার থাবা, আক্রান্ত এক নার্স, কন্টেনমেন্ট জোন সুভাষপল্লী

আমাদের ভারত, বর্ধমান, ৫ মে: এবার বর্ধমান শহরের এক মহিলা করোনায় আক্রান্ত হলেন। ঘটনার জেরে বর্ধমান শহর জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যেই বর্ধমান শহরের সুভাষপল্লী এলাকাটিকে কন্টেনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে দেওয়া হয়েছে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বর্ধমান শহরের সুভাষপল্লী এলাকার বাসিন্দা ওই মহিলা কলকাতার একটি হাসপাতলে নার্সের চাকরি করেন। তিনদিন আগে তিনি বর্ধমানের বাড়িতে ফিরে আসেন। সোমবার সন্ধ্যে নাগাদ বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে চিকিৎসা করাতে যান। সেখানে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হলে সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সেই রিপোর্ট নিশ্চিত করতে আইসিএমআর এ পাঠানো হয়েছিল। আইসিএমআর রিপোর্ট নিশ্চিত করে।

এরপরে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ওই আক্রান্ত পরিবারের সকলকে বর্ধমানের কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার আক্রান্ত মহিলাকে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

পূর্ব বর্ধমান জেলার জেলাশাসক বিজয় ভারতী বলেন, তিনদিন আগে এক মহিলা কলকাতা থেকে বর্ধমানের বাড়িতে ফিরেছিলেন। গতকাল তাঁর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। তাঁর পরিবারের চারজনকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তার স্বামী বিদ্যুত দফতরের আধিকারিক। তাঁদের সংস্পর্শে কারা কারা এসেছিলেন সেই তালিকা তৈরি করছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে যান পূর্ব বর্ধমান জেলার পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায়। পুলিশ সুপার বলেন, এলাকাটি কনটেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কোনওভাবেই মানুষজন যাতে বাড়ি থেকে বের না হয় সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে পুলিশ সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে। এলাকায় নজরদারি চালানোর জন্য ড্রোনের সাহায্য নেওয়া হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here