অগাষ্ট থেকেই চালু “এক দেশ এক রেশন কার্ড”, ৮ কোটি পরিযায়ী শ্রমিকে বিনামূল্যে খাদ্য শস্য বন্টন: ঘোষণা অর্থমন্ত্রীর

আমাদের ভারত, ১৪ মে: প্রথম দিন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকে ঘুরে দাঁড়ানোর বার্তা দিয়ে প্যাকেজ ঘোষণা করেছিলেন অর্থমন্ত্রী। আজ পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কেন্দ্র সরকারের গৃহীত বড় উদ্যোগের ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। অর্থমন্ত্রী জানালেন, আগামী আগস্ট মাস থেকেই কার্যকর হবে “এক দেশ এক রেশন কার্ড”। একই সঙ্গে আগামী ২ মাস পরিযায়ী শ্রমিকদের বিনামূল্যে খাদ্য শস্য বন্টন করা হবে বলেও ঘোষণা করেছেন তিনি।

বেশ কিছুদিন ধরেই জল্পনা ছিল দেশজুড়ে এক রেশন কার্ড চালু করবে কেন্দ্র সরকার। সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল অন্য রাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিকদের জন্য এই প্রকল্প চালু করতে হবেতাড়াতাড়ি। এবার তাতেই সীলমোহর দিল কেন্দ্র। বৃহস্পতিবার নির্মালা সীতারামন জানিয়ে দিলেন এক দেশ এক রাশন কার্ড কার্যকর করা হচ্ছে আগস্টের মধ্যেই। ২৩ টি রাজ্যের রেশন উপোভক্তাদের ৮৩% এর ফলে উপকৃত হবেন।

নির্মলা সীতারামন একই সঙ্গে ঘোষণা করেছেন আগামী দু-মাস সমস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের বিনামূল্যে খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হবে। রেশন কার্ড নেই এমন পরিযায়ী শ্রমিকদেরও মাসে মাথাপিছু ৫ কেজি চাল ও গম এবং পরিবারপিছু এক কেজি ডাল দেওয়া হবে। আগামী দু মাস তারা এই পরিষেবা পাবেন।

অর্থমন্ত্রী জানান এর পরিষেবার ফলে ৮ কোটি পরিযায়ী শ্রমিক লাভবান হবেন। এর জন সরকারের খরচ হবে ৩৫০০ কোটি টাকা।

লক ডাউনের কারণে সবচেয়ে বিপর্যস্ত পরিস্থিতিত পড়েছে ৪৫ কোটি পরিযায়ী শ্রমিক। কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অন্য রাজ্যে আটকে পড়ে থেকে জমিয়ে রাখা সমস্ত সঞ্চয় ফূরিয়েছে তাদের। ফলে তাদের জন্য কেন রেশনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন একাধিকবার বিরোধীরা। তারা নিজেদের রাজ্যের রেশন কার্ড অন্য রাজ্যে ব্যবহার করতে না পারায় দূর্ভোগে পড়েছেন। দেশের শীর্ষ আদালত নির্দেশ দিয়েছিল এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় এক দেশ এক কার্ড প্রকল্প দ্রুত কার্যকর করতে হবে কেন্দ্র সরকারকে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here