পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা জারি করল মোদী সরকার

আমাদের ভারত, ২৫ অক্টোবর: উৎসবের মরসুমে অগ্নিমূল্য পেঁয়াজ। পুজোর সময় একটু ভালো-মন্দ খাবার চিন্তা করলেই পেঁয়াজের দাম শুনলে মানুষের চোখে জল চলে আসছে। সম্পূর্ণ বাজারের প্রায় অর্ধেক দামে পেঁয়াজ কিনলে তা ব্যাগের তলানীতে পড়ে থাকবে পরিস্থিতি এমন। কিন্তু কেন্দ্রের নতুন নির্দেশিকায় পেঁয়াজের দামের ঊর্ধ্বগতিতে রাস টানবে বলে মনে করা হচ্ছে। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে এক নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে মোদী সরকার।

উপভোক্তা খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রকের তরফ থেকে শুক্রবার জানানো হয়েছে ২৩ অক্টোবর থেকে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত একেবারেই পেঁয়াজের অতিরিক্ত মজুতদারী করা যাবে না। এই সময়ের মধ্যে একজন পাইকারি বিক্রেতা নিজের গুদামে ২৫ টনের বেশি পেঁয়াজ মজুদ রাখতে পারবে না। আর খুচরা বিক্রেতারা ২টনের বেশি পেঁয়াজ মজুদ রাখতে পারবে না। একই সাথে সরকারি গুদামে থেকেও পেঁয়াজ বাজারে আনার কথা ভাবা হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে এই সিদ্ধান্তের ফলে পেঁয়াজের দামে লাগাম পড়বে।

বিরোধীরা দাবি করেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দামবৃদ্ধির কারণেই কৃষি আইনের বিরোধিতা করছেন তারা। অত্যাবশ্যকীয় পণ্য মজুদ আইনে সংশোধন আনা অত্যন্ত জরুরী। আকাশছোঁয়া মূল্যবৃদ্ধি হলেও সরকারের হস্তক্ষেপ করতে পারছে না। জিনিসের দাম ১০০% বাড়লে তবেই সরকার হস্তক্ষেপ করতে পারবে, তার আগে নয়।

এদিকে এবছর কর্ণাটক, অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্রে অতিবৃষ্টির কারণে ফসল নষ্ট হয়েছে। বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে পেঁয়াজের উৎপাদন। তবে কেন্দ্র আশাবাদী খারিফ শস্য উৎপাদনের মরশুম ঢুকে গেলেই দাম নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here