রঘুনাথপুরের মেটালা জুনিয়র হাই স্কুলে শিক্ষকের মারধরের অভিযোগে থানায় অভিভাবকরা, ক্লাস বয়কট পড়ুয়াদের

সাথী দাস, পুরুলিয়া, ৬ আগসট: স্কুলের পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠল শিক্ষকের বিরুদ্ধে। শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হল। শাস্তির দাবিতে স্কুল বয়কট করল পড়ুয়ারা। ঘটনাটি ঘটেছে রঘুনাথপুর ১ ব্লকের অন্তর্গত মেটালা জুনিয়র হাই স্কুলে।

সূত্রের খবর, স্কুলের এক ছাত্রের ব্যাগ থেকে একশো টাকা চুরি হয়ে গিয়েছিল। তার পরিপ্রেক্ষিতে স্কুলের শিক্ষক আনন্দ মান্ডির কাছে অভিযোগ জানিয়েছিল ওই ছাত্র। চুরির শাস্তি দিতেই এরপর ওই শিক্ষক স্কুলের পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের বেধড়ক মারধর করেন বলে অভিযোগ। এতে দুই পড়ুয়া আহত হয় বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার পর ক্ষুব্ধ ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকরা আদ্রা থানায় শিক্ষক আনন্দ মান্ডির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁদের অভিযোগ, ওই শিক্ষক প্রায়শই স্কুলে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় আসেন। পড়ুয়াদের সাথে তার ব্যবহারও ঠিক নয়। পড়ুয়াদের একাংশের অভিযোগ, এদিন বিনা কারণে তাদের মারধর করেছেন ওই শিক্ষক। প্রতিবাদ করলে আরও মারধর করবেন বলে হুমকি দিয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে এদিন ওই স্কুলে বিক্ষোভ দেখান অবিভাবকরা। একই দাবিতে আজ ক্লাস বয়কট করে পড়ুয়ারা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছায়।

শিক্ষক আনন্দ মান্ডি মারধর করার কথা স্বীকার করেন। তিনি ফোনে জানিয়েছেন, সেদিন স্কুলে তিনি একমাত্র উপস্থিত ছিলেন। সব ক্লাসের দায়িত্ব ছিল তাঁর উপরই। তাই দুষ্টুমি করার জন্য সামান্য মারধর করা হয়েছিল, এর বেশি কিছু নয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here